ঐতিহাসিক গোর-এ শহীদ ময়দানে এবার অনুষ্ঠিত হলো না ঈদের জামায়াত

0
3

শিমুল, দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারনে দেশের সর্ববৃহৎ ঈদগাহ দিনাজপুরের ঐতিহাসিক গোর-এ শহীদ বড় ময়দানে এবার অনুষ্ঠিত হলো না ঈদের জামায়াত। করোনা ঝুকি এড়াতে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করে সর্ববৃহৎ এই জামায়াতের পরিবর্তে ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়েছে দিনাজপুর জেলার ৬ হাজার ৮০৮টি মসজিদে।

এবারই প্রথম মুসল্লীরা ঈদগাহ বা খোলা মাঠের পরিবর্তে নামাজ আদায় করলেন মসজিদের চার দেয়ালের মধ্যে। তবে করোনা পরিস্থিতি কাটিয়ে আবার এই বৃহৎ জামায়াতে নামাজ আদায় করতে পারবেন-এমন প্রত্যাশা সংশ্লিষ্টদের।

দেশের সর্ববৃহৎ ঈদের জামায়াতের প্রধান উদ্যোক্তা জাতীয় সংসদের হ্ইুপ আজ সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদের নামাজ আদায় করেন দিনাজপুর শহরের হাসপাতাল জামে মসজিদে। নামাজ শেষে তিনি জানান, বৈশ্বিক করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারনে বড়ময়দানের পরিবর্তে এবার মসজিদেই নামাজ আদায় করা হলো। তিনি বলেন, করোনা ভাইরাসের ফলে মসজিদেও নামাজ বন্ধ ছিলো। কিন্তু অবশেষে মসজিদের নামাজ আদায় করার সুযোগ করে দেয়ার জন্য এই ঈদের নামাজ আদায় করার সুযোগ হলো।

দেশের সর্ববৃহৎ এই জামায়াতে ঈমামতি করতেন মাওলানা সামশুল আলম কাসেমী। তিনি জানালেন, করোনা পরিস্থিতির কারনে এবার বৃহৎ এই জামায়াত অনুষ্ঠিত না হওয়ায় মসজিদে জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে মহান আল্লাহপাক ঈদের মাঠের সওহাব আমাদের দিবেন বলে আশাপ্রকাশ করেন তিনি।
এদিকে বৃহৎ এই জামায়াতে এবার নামাজ আদায় করতে না পেরে তেমন খুশী নন মুসল্লীরা। তবে তারা আশা প্রকাশ করেন করোনা পরিস্থিতি কাটিয়ে আগামী ঈদে তারা গোর এ শহীদ ময়দানের বৃহৎ জামায়াতে নামাজ আদায় করতে পারবেন।

উল্লেখ্য, আয়তনের দিক থেকে দেশের সর্বৃবহৎ দিনাজপুরের গোর এ শহীদ বড় ময়দানে গত ৩ বছর ধরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে দেশের সর্ববৃহৎ ঈদের জামায়াত। ২২ একর আয়তন বিশিষ্ঠ এই জামায়াতে ২০১৭ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত ৬টি ঈদে প্রত্যেকটিতে একসাথে ৫ লক্ষাধিক মুসল্লী নামাজ আদায় করেন। দিনাজপুর জেলা ছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মুসল্লীরা এখানে আসতেন নামাজ আদায় করতে। তবে করোনা পরিস্থিতি কাটিয়ে আবার এই বৃহৎ জামায়াতে নামাজ আদায় করতে পারবেন-এমন প্রত্যাশা সংশ্লিষ্টদের।