ওয়ানডে সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার শুভ সূচনা

0
14

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে জয়ের শুভ সূচনা করলো অস্ট্রেলিয়া। এমিরেটস ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ইংলিশদের ১৯ রানে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারানোর বদলায় ওয়ানডেতে ১-০তে এগিয়ে থাকলো অজিরা।

শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাতে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে তাড়াতড়ি ওয়ার্নার ও ফিঞ্চকে হারিয়ে ব্যাকফুটে যায় অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু মিচেল মার্শ ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের শতরানের জুটি দলকে শক্ত ভিত গড়ে দিয়েছিল। এদিন ছিলেন নাম স্টিভ স্মিথ। ম্যাচের আগের দিন অনুশীলনে মাথায় বলের আঘাত লাগায় প্রথম ম্যাচ থেকে ছিটকে যান স্মিথ।

ফিঞ্চের উইকেট নেয়ার পর স্ট্রয়নিসকে ফেরান ফেরান মার্ক উড। তার আগে এই অজি ব্যাটসম্যান ৩৪ বলে করে যান ৪৩ রান। লাবুসচাঙ্গে নিজের ২১ রানের মাথায় এলবি হন আদিল রশিদের বলে। এর পরপরই এলেক্স ক্যারিকেও ১০ রানে ফেরান রশিদ।

৫ উইকেট হারানোর পর মিচেল মার্শের সঙ্গে জুটি গড়েন ম্যাক্সওয়েল। এই জুটি দলীয় সংগ্রহে ১২৬ রান যোগ করে বিচ্ছিন্ন হয়। ৫৯ বলে দলের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৭৭ রান করে ইনিংসের ছয় ওভারের বেশি বাকি থাকতে আউট হন ম্যাক্সওয়েল। অন্যদিকে পাঁচ নম্বরে নেমে মার্শ চার বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ ৭৩ রানের ইনিংস খেলেন। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেট হারিয়েছে অজিদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৯৪ রান।

ইংল্যান্ডের পক্ষে জোফরা আর্চার ও মার্ক উডস তিনটি করে, আদিল রশিদ ২টি ও ক্রিস ওকস ১টি উইকেট নেন।

২৯৫ রানের লক্ষ্যে নেমে মাত্র ৫৭ রানে চার উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। এর মধ্যে জেসন রয় ৩, রুট ১, ইয়ন মর্গান ২৩ ও জো বাটলার ১ রান করে বিদায় হন। এই বিপর্যয় থেকে দলকে টেনে তোলেন জনি বেয়ারস্টো ও বিলিংস। দুজনের ১১৩ রানের জুটি আশা দেখিয়েছিল স্বাগতিকদের। বেয়ারস্টোকে ৮৪ রানে প্যাভিলিয়নে পাঠিয়ে ইংলিশদের দুর্বার গতি থামান অ্যাডাম জাম্পা।

এর পরও বিলিংসের ব্যাটে টিকে ছিল ইংল্যান্ডের আশা। ১০১ বলে ক্যারিয়ারের প্রথম শতক হাঁকান এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান। অন্যপ্রান্তে আর্চারকে নিয়ে শেষ ওভারে প্রয়োজনীয় ২৮ রান তুলতে পারেননি বিলিংস। বরং শেষ বলে তিনি মার্শের বলে ডেভিড ওয়ার্নারের ক্যাচ হন ১১৮ রান করে। স্যাম বিলিংসের অভিষেক সেঞ্চুরির পরও ১৯ রানে হেরেছে ইংল্যান্ড।

অজি পেসার জশ হ্যাজেলউড ১০ ওভার বল করে ২৬ রান দিয়ে তিন উইকেট, সমান বল করে ৫৫ রান খরচে ৪ উইকেট নেন জাম্পা। ম্যাচসেরা হয়েছেন জশ হ্যাজেলউড।

এমিরেটস ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে এই জয়ে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেলো অস্ট্রেলিয়া। রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) একই ভেন্যুতে হবে দ্বিতীয় ওয়ানডে।