রাত ১০:৪৮ মঙ্গলবার ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

মির্জাপুরে আজগানা ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলনে সভাপতি মোক্তার, সম্পাদক শহিদুল | নাটোরে “টেকসই উন্নয়ন বাস্তবায়ন ও সমন্বয়” বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত | রাজধানীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ইন্দোনেশিয়ার নাগরিকের মৃত্যু | টানা চারবার ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিলেন ক্যানসারজয়ী নারী | বান্দরবানে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে এপেক্স ক্লাব | বান্দরবানে যে বিদ্যালয়ে এ ভর্তির আগে সাঁতার শিখতে হয়! | ঝালকাঠিতে নদী ভাঙ্গনের কবলে দোকনঘর, নদীগর্ভে ফেরি | আবারও একসঙ্গে রণবীর-ক্যাটরিনা | লভ্যাংশ ঘোষণার পর দুই কোম্পানির দরপতন | আট বিভাগীয় শহরে হবে পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসাকেন্দ্র |

নান্দাইলে খুনের হ্যাট্রিক

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : আগস্ট ২৫, ২০১৯ , ৭:১১ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : ময়মনসিংহ
পোস্টটি শেয়ার করুন

এইচ এম সাইফুল্লাহ্,ময়মনসিংহ (নান্দাইল) প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের নান্দাইলে তিন দিনে তিন খুন হয়েছে। তুচ্ছ বিষয়গুলোকে কেন্দ্র করে এমন খুনের ঘটনায় আবাক নান্দাইলবাসী। উপজেলার দেওয়ানগঞ্জ বাজারের আধিপত্য নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে সংর্ঘের ঘটনায় রোববার (২৫ আগস্ট) সাইদুল ইসলাম নামে এক যুবক নিহত ও আটজন আহত হয়েছে।

এ ঘটনায় নান্দাইল মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাতজনকে আটক করেছে। স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, উপজেলার খারুয়া ইউনিয়নের বিরাশি গ্রামের মুক্তুল মল্লিক এবং মহেষকুড়া গ্রামের মৃত ইয়াজদর সরকার বাড়ির সাথে দেওয়ানগঞ্জ বাজারের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সৃষ্ট গোলযোগে এই খুনের ঘটনা ঘটে।

জানাযায়, গত এক সপ্তাহ পূর্বে সাইদুল ইসলাম একটি চায়ের দোকানে বসে রাতের বেলায় চা পান করছিল। এসময় মুক্তুল মল্লিকের ছেলে বজলু মিয়া সাইদুলের মুখে টর্চ লাইটের আলো মারে। এতে সাইদুল ক্ষিপ্ত হয়ে তার দিকে চা ছুড়ে দেয়। এই ঘটনায় দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে স্থানীয় নেতৃবৃন্দ বিষয়টি আলোচনার মাধ্যমে আপোষের কথা থাকলেও রোববার ( ২৫ আগস্ট) মুক্তুল মল্লিকের পক্ষ দেওয়ানগঞ্জ বাজারে এসে হঠাৎ করে প্রতিপক্ষের উপর হামলা চালায়। এতে করে হামলায় মহেষকুড়া গ্রামের এজাহার মিয়ার পুত্র সাইদুল (৩৫) প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে মারাত্মক আহত হলে তাকে হোসেনপুর উপজেলা হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। উক্ত হামলায় মহেষকুড়া গ্রামের পাভেল, সনজু, হিমেল, হানিফ, জুনাইদ সহ আটজন আহত হয়েছে। এদের মাঝে পাভেল (৩০) এর একটি হাত কেটে ফেলেছে প্রতিপক্ষরা। তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নান্দাইল মডেল থানা পুলিশ খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করেন এবং এই খুনের সাথে জড়িত সন্দেহে সাত জনকে আটক করেছে বলে অফিসার ইনচার্জ মনসুর আহম্মদ নিশ্চিত করেছেন। নিহত সাইদুল ইসলামের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ রিপোর্ট পাঠানো পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এর আগে গত শনিবার গরু কলাগাছ খেয়ে ফেলাকে কেন্দ্র করে একজনের মৃত্যু হয়েছে। গত শুক্রবার(২৩অাগষ্ট) বেলা ৩:৩০ মিনিটের দিকে উপজেলার বীর বেতাগৈর ইউনিয়নের অালিহরগাতি গ্রামের জলিলের কলা গাছ একই গ্রামের অাক্কাছ অালীর গরু খেয়ে ফেললে এ নিয়ে দুপক্ষের মাঝে সংঘর্ষ হয়, এক পর্যায়ে জলিলের পুত্র নাসির উদ্দিন(৩৫) অাক্কাছ অালীর কিশোরপুত্র নায়িম(১৩)কে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর অাহত করে। গুরুতর অাহতাবস্থায় শনিবার (২৪ অাগষ্ট) ঢাকা নেওয়ার পথে কিশোর নায়িমের মৃত্যু হয়।

এদিকে গত শুক্রবার উপজেলার খারুয়া ইউনিয়নের হালিউড়া গ্রামে সৎ পুত্রের ছুরিকাঘাতে মা খুন হয়। আঃ হেলিম উদ্দীনের পুত্র জীবন(২০) শুক্রবার বিকাল ২ ঘটিকার সময় পারিবারিক বিষয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সৎ মা মুক্তা (৩৫)কে ছুরিকাঘাত করলে ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়।

এ নিয়ে নান্দাইলে খুনের হ্যাট্রিক হয়েছে। প্রতিদিনের খুনের ঘটনায় উপজেলার আইন-শৃংঙ্খলার চরম অবনতি হয়েছে বলে অনেকেই ধারনা করছেন।

Comments

comments