রাত ৩:০৭ বুধবার ২০শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

কালো তালিকাভুক্ত হচ্ছে অর্ধশতাধিক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান | ‘আমার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান চালালে অনেক এমপি-মন্ত্রীর যাবজ্জীবন দণ্ড হবে’ | লবণ নিয়ে গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা: প্রেস নোট | দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী | শার্শায় গুজব রটিয়ে বেশী দামে লবন বিক্রি করায় ৩ অসাধু লবণ ব্যবসায়ী আটক | এক কেজির বেশি লবণ কিনলেই আটক করছে পুলিশ | সিরাজদিখানে অতিরিক্ত দামে লবন কেনা-বেচার দায়ে ৬ ক্রেতা বিক্রেতা আটক | চাটমোহরে বিডি ক্লিন’ সংগঠনটির স্বেচ্ছায় আবর্জনা পরিষ্কার | ইলিশায় প্রতিবন্ধীদের সিআরএ রিপোর্ট বৈধকরণ সভা অনুষ্ঠিত | তালতলীতে বেশী দামে লবণ বিক্রি করায় ৩ ব্যবসায়ীকে জরিমানা, একটি সিলগালা |

‘একটিই দাবি, তসলিমার মৃত্যুদণ্ড চাই’

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : জুলাই ৮, ২০১৮ , ১১:৩৭ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : বিশেষ প্রতিবেদন
পোস্টটি শেয়ার করুন

বহুল আলোচিত-সমালোচিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি ও আত্মগোপনে থাকার স্মৃতিচারণ করেছেন সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে।১৯৯৪ সালে আত্মগোপণে থাকা সময়ের একটি ছবি পোস্ট করে তিনি লিখেছেন’জুন, ১৯৯৪ সাল। আত্মগোপন অবস্থায় আমি। খালেদা জিয়ার সরকার আমার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করার পর আত্মগোপন করার পরামর্শ দিয়েছিলেন ল’ইয়ার। কারণ পুলিশ তো নয়ই, জেলও নাকি আমার জন্য নিরাপদ নয়। ধর্মান্ধ কয়েদিরা আমাকে খুন করতে পারে।

 


(আত্মগোপনে থাকার সময়ে ছবিটি তসলিমা নাসরিন তার ফেসবুক আইটিতে প্রকাশ করেছেন)

কেন গ্রেফতারি পরোয়ানা? আমার লেখা ধর্মান্ধ গোষ্ঠীর মনে আঘাত দিয়েছিল। তাই সরকার আমার বিরুদ্ধে মামলা করেছিল, সে কারণে।ধর্মান্ধরা ঢাকা শহরে প্রায় প্রতিদিন মিছিল করছিল আমার ফাঁসির দাবিতে। মিছিলে দশ এমনকী পঞ্চাশ হাজারও লোক হতো। আমি অন্তরীণ থাকা অবস্থায় সারা দেশ থেকে ঢাকায় আসার জন্য লং মার্চ করেছিল মোল্লারা, মানিক মিয়া এভিনিউতে জনসভা হয়েছিল চার লক্ষ লোকের।একটিই দাবি, তসলিমার মৃত্যুদণ্ড চাই। পুলিশ আমাকে খুঁজে পাচ্ছে না, মোল্লারা ঘোষণা করে দিয়েছে, বাড়িতে বাড়িতে ঢুকে আমাকে খুঁজবে ওরা। আমাকে পেলে আইন নিজের হাতে তুলে নেবে। আমি কি সে কারণেই উদ্বিগ্ন? চোখে মুখে কি ভয় আমার?টিবিটি

Comments

comments