রাত ৪:৩০ বৃহস্পতিবার ১৪ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং

পানামা ও প্যারাডাইস কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত ৭ জনকে দুদকে তলব

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : জুলাই ৮, ২০১৮ , ১১:২৩ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : অপরাধ ও দুর্নীতি
পোস্টটি শেয়ার করুন

পানামা ও প্যারাডাইস পেপারস কেলেঙ্কারির ঘটনায় সাত ব্যবসায়ীকে তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। রোববার (৮ জুলাই) বিকেলে দুদকের উপ-পরিচালক ও জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, পানামা পেপারস কেলেঙ্কারির ঘটনায় চার ব্যবসায়ীকে আগামী (১৬ জুলাই) দুদকে হাজির থাকতে বলা হয়েছে। অভিযুক্ত চার জন হলেন- ইউনাইটেড গ্রুপের চেয়ারম্যান হাসান মাহমুদ রাজা, পরিচালক খন্দকার মঈনুল আহসান শামীম, আকতার মাহমুদ ও আহমেদ ইসমাইল হোসেন। এছাড়া প্যারাডাইস পেপারস কেলেঙ্কারির ঘটনায় জড়িত উইং লিমিটেডের পরিচালক এরিক জনসন আনড্রেস উইলসন, ইন্ট্রিডিপ গ্রুপের ফারহান ইয়াকবুর রহমান এবং সেলকন শিপিং কোম্পানির মাহতাবা রহমাকে আগামী (১৭ জুলাই) কমিশনে হাজির হতে বলা হয়েছে।

 

 

এর আগে ইউনাইটেড গ্রুপের পরিচালক ও ইউনাইটেড হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ফরিদুর রহমান খানের বিরুদ্ধে হোল্ডিং ট্যাক্স বাবদ ২১ কোটি ৪৪ লাখ ২৬ হাজার ৯৯৩ টাকা আত্মসাৎ করায় মামলা করে দুদক। ওই মামলায় ফরিদুর রহমান খানের সঙ্গে আসামি করা হয় অবিভক্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সাবেক কমিশনার রহিমা বেগমকে।উল্লেখ্য, কর ফাঁকি ও অর্থপাচার সংক্রান্ত পানামা পেপারস কেলেঙ্কারিতে রাজনীতিবিদ ও ব্যবসায়ীসহ ৩৪ বাংলাদেশি ব্যক্তি ও এক প্রতিষ্ঠানের নাম উঠে আসে। এরপর ২০১৬ সালের এপ্রিলে দুদকের উপ-পরিচালক এস এম এম আখতার হামিদ ভূঁঞাকে প্রধান করে তিন সদস্যের অনুসন্ধান দল গঠন করে দুদক।

 

 

প্যারাডাইস পেপারসের প্রায় ২৫ হাজার নথি প্রকাশ করা হয় ২০১৭ সালের নভেম্বরে দিকে। যেখানে বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি ও একটি প্রতিষ্ঠানের নাম উঠে এসেছে। এদের মধ্যে বিএনপি নেতা আবদুল আউয়াল মিন্টু ও তার পরিবারের কয়েকজন সদস্য রয়েছেন। ওই বছরের ৫ নভেম্বর প্রথম দফায় প্রকাশ করা নথিতে যুক্তরাজ্যের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ, সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজসহ বিশ্বের অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তির গোপন সম্পদের তথ্য বেরিয়ে আসে। তবে সেখানে কোনো বাংলাদেশির নাম ছিল না।

Comments

comments