দেশজুড়ে

করোনা নিয়ে কিছু ভাবনা ও কিছু করনীয়

পলাশবাড়ীর সাংবাদিক হাসিবুর রহমান স্বপন


ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা: করোনা পরিস্থিতিতে অনেক মানুষই একদিকে কর্মহীন হয়ে পড়েছে,অন্যদিকে ঘূর্নিঝড় আম্পানের কারনে সারাদেশের ন্যায় পলাশবাড়ীতেও ঝড় বাতাস গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিতে মানুষ যখন ঘরে তখন ঘরে বসে নেই স্থানীয় সাংস্কৃতিক ও সাহিত্যমনা সাংবাদিক হাসিবুর রহমান স্বপন।

২৩ মে শনিবার পলাশবাড়ী পৌর এলাকার ৫নং ওয়ার্ড এলাকায় নিজ উদ্যোগে কর্মহীন অর্ধশতাধিক বিভিন্ন পেশার মানুষের বাড়ী বাড়ী গিয়ে তুলে দেন তিনি ঈদ উপহার ।

ঈদ উপহার প্রদান শেষে তিনি জানান,সামান্য উপহারটুকু দিতে পেরে আমি আনন্দিত।যত দিন বেঁচে থাকবো ততদিন মানুষের সেবায় কাজ করবো।

তিনি আরও জানান, করোনা প্রতিরোধে প্রথম থেকেই নানামুখী উদ্যোগ নিয়েছেন সাংবাদিক হাসিবুর রহমান স্বপন। যিনি বৈষিক মহামারী করোনা ভাইরাস প্রার্দূভাব এড়াতে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন।তার এমন উদ্যোগে জনসাধারনের মাঝে স্থানীয় সাংবাদিকদের কর্মকান্ড নিয়ে ইতিবাচক মনোভাব তৈরি হয়েছে।

গত ২৪ মার্চ থেকে মানবসেবায় বিভিন্ন কার্যক্রম প্রস্তুতি শুরু করেন তিনি। শুরু হয় তার নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে খাদ্য উপহার,জীবানুনাশক স্পে,মসজিদে মুসুল্লিদের সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যাবস্থা,মাক্স ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতামুলক লিফলেট বিতরন।
পবিত্র মাহে রমজানে রোজাদার কর্মহীন দরিদ্র ও মধ্যবিত্ত পরিবারে সামর্থ্য অনুযায়ী ইফতার সহয়তায় ভূমিকা রেখেছেন তিনি।

পাশাপাশি জীবন বাজি রেখে নিজ গ্রামের পাড়া মহল্লার আনাচে কানাচে করে যাচ্ছেন জীবানুনাশক স্প্রে ও প্রতিনিয়ত প্রতিবেশীদের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছেন। এতে করে সাধারণ মানুষের ভাইরাস সংক্রমন রোধে সচেতনতায় ভুমিকা পালন সহ সহযোগিতার হাত প্রসারিত করে চলেছেন। তার এমন উদ্যোগে সাধারণ মানুষের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনা লক্ষ্য করা গেছে।

কোথাও স্বশরীরে চালিয়ে যাচ্ছেন জীবানুনাশক স্প্রে কার্যক্রম, আবার কখনো পাড়ামহল্লার যুবকদের অনুপ্রেরনা দিচ্ছেন এবং তাদের হাতে তুলে দিচ্ছেন জীবানুনাশক ব্লিচিং পাউডার সহ স্প্রে মেশিন।

‘সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখি’ এ স্লোগান বুকে ধারন করে তিনি ইতোমধ্যে নির্দিষ্ট পরিবারের কাছে উপহারের খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেয়ার কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।শুধু কর্মহীন দরিদ্র বা মধ্যবিত্তই নয় পাশাপাশি অব্যাহত রেখেছেন ভাসমান ও ছিন্নমূলদের মাঝে সামথ্য অনুযায়ী খাদ্যসামগ্রী বিতরণ।

তার এমন উদ্যোগের বিষয় জানতে চাইলে হাসিবুর রহমান স্বপন বলেন,অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোর সময় এসেছে তাই এ সুযোগ হাতছাড়া করতে চাইনা।এছাড়া আমার সহকর্মি সাংবাদিক,বন্ধু,শ্রদ্ধেয় বড়ভাই,ছোট ভাই,বাবা-মার সহযোগিতায় ও আমার সহধর্মিণীর অনুপ্রেরণায় -আমি সিক্ত হচ্ছি।

তিনি আরও জানান,চলমান কার্যক্রমের ফলে ‘পরিবারের পাশে সময় দিতে পারছিনা ফলে কিছুতেই ঘরবন্দী হতে পারছিনা। নিজের কষ্ট হলেও মানুষ যাতে ভালো থাকে সেই চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমি মনে করি, প্রতিটা মানুষ আমার পরিবারে সদস্য । তাই বর্তমানে আলোকে “সামাজিক দুরুত্ব বজায় রাখি”এর কার্যক্রম শুরু করেছি যা সংকটকালিন পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button