আন্তর্জাতিক

খরচ ৫০০ টাকা, শনাক্ত ৯০ মিনিটে! ওপার বাংলায় তৈরি করোনা কিট

  • 5
    Shares

ভারতে করোনা সনাক্তে যে কিট ব্যবহার করা হচ্ছে, তাতে রিপোর্ট পেতে সময় লাগছে অনেক। সেই সঙ্গে চীনা ওই সব কিটে পরীক্ষার খরচও প্রায় ১৪০০ টাকার মতো। এই পরিস্থিতিতে ওপার বাংলার জন্য সুখবর। এবার বাংলাতেই তৈরি হচ্ছে করোনার কিট। সেই কিটকে এরই মধ্যে স্বীকৃতি দিয়েছে ভারতের চিকিৎসা গবেষণা সংক্রান্ত সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিএমআর।

নতুন এই কিটে পরীক্ষা করতে খরচ হবে মাত্র ৫০০ টাকা। আর রিপোর্ট পাওয়া যাবে মাত্র ৯০ মিনিটের মধ্যে। কিটটি তৈরি করছে ‘জিসিসি বায়োটেক ইন্ডিয়া’ নামে একটি সংস্থা। আর এই কিট তৈরির যারা মাথা, তারা হলেন ড. অভিজিৎ ঘোষ এবং জয়দীপ মিত্র। এই কিটের নাম ‘ডায়াগশিওর এনসিওভি -১৯ ডিটেকশন অ্যাসে’।

সংশ্লিষ্ট সংস্থা জানাচ্ছে, এই কিট আবিষ্কারের ফলে আর বাইরের কিটের জন্য অপেক্ষা করতে হবে না। এমনকী এই কিট তৈরির কাঁচামালও বাইরে থেকে আনতে হয়নি, সম্পূর্ণ দেশীয় কাঁচামাল দিয়ে তৈরি হচ্ছে এই কিট। পশ্চিম বঙ্গ রাজ্যের দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার বাঁকড়াহাটে এই কিট তৈরির কাজ চলছে।

জিসিসি বায়োটেক (ইন্ডিয়া) প্রাইভেট লিমিটেডের মলিকিউলার ডায়াগনস্টিক ডিভিশনের প্রধান জয়দীপ মিত্র জানান, তাদের কাছে ৫০ লাখ রিয়েকশন তৈরি রয়েছে। সরকার যদি চায়, তারা প্রতি মাসে এক কোটি কিট তৈরি করতে পারে। তার কথায়, ‘আমাদের লক্ষ্য টেস্টিং ফর অল। যাতে বাংলা তথা দেশের সমস্ত মানুষ সস্তায় করোনা পরীক্ষা করাতে পারে সে জন্যই আমারা এই কিট তৈরি করেছি।’

উল্লেখ্য, বিশেষজ্ঞরা বারবার বলে যাচ্ছেন লকডাউন উঠে গেলে করোনা চলে যাবে, ব্যাপারটা মোটেই তা নয়। করোনাকে নিয়েই এখন বাঁচার লড়াই চালাতে হবে মানুষকে। সেই কারণেই টেস্টের প্রয়োজনীয়তাও এখনই শেষ হয়ে যাবে না। সেক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গের তৈরি এই কিট অত্যন্ত কার্যকরী হয়ে উঠবে বলেই আশা করা হচ্ছে।

সূত্র- এই সময়।


  • 5
    Shares

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button