দেশজুড়ে

যৌতুকের দাবিতে একই পরিবারের ৪জনকে কুপিয়ে জখম; ঘাতক গ্রেপ্তার

  • 313
    Shares

রাব্বি ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টারঃ টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে যৌতুকের দাবিতে একই পরিবারের ৪ জনকে কুপিয়েছে ঘাতক স্বামী। বৃহস্পতিবার (১৭ই সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার মহেড়া ইউনিয়নের স্বল্প মহেড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত ৪ জনকে টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মহেড়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. বাদশা মিয়া।

আহতরা হলেন, স্বল্প মহেড়া গ্রামের মো. সিরাজুল ইসলাম  (৬০) ও তার স্ত্রী জবেদা বেগম (৫৫), বড় মেয়ে রাফিয়া (২৪) ও তার ছোট মেয়ে শিলা (১৯)।

মহেড়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. বাদশাই মিয়া জানান, জামুর্কী ইউনিয়নের পূর্ব গোড়ান গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে স্বপনের (২৪) সাথে গত ৩ মাস পূর্বে বিবাহ হয় পার্শ্ববর্তী মহেড়া ইউনিয়নের স্বল্প মহেড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের মেয়ে শিলার সাথে। বিবাহের পর থেকেই স্বামী তাকে যৌতুকের জন্য নানাভাবে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করে আসছিলো। বুধবার শিলা তার বাবার বাড়ি এসে বিষয়টি চেয়ারম্যানকেও অবহিত করেন।

এদিকে বৃহস্পতিবার বিকেলে শ্বশুড়বাড়ি আসেন স্বপন। বিকেল পেরিয়ে সন্ধ্যার দিকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে যৌতুকের বিষয় নিয়ে বাকবিতন্ডা চলে। এক পর্যায়ে স্বপন তার শ্বশুড়-শ্বাশুড়ি, নিজ স্ত্রী, স্ত্রীর বড় বোনকে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারিভাবে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। তাদের ডাক-চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে রক্তাক্তবস্থায় তাদের উদ্ধার করে টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। এদিকে এলাকাবাসী ঘাতক স্বপনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার এস.আই দীপু সরকার জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি এবং ঘাতককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার কাছ থেকে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।


  • 313
    Shares

Related Articles