বিকাল ৫:১৭ মঙ্গলবার ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং

সেন্টমার্টিনে আটকা পর্যটকের জন্য ৫০ শতাংশ মূল্যছাড় দিতে নির্দেশ

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : নভেম্বর ৯, ২০১৯ , ৮:৩৪ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : জাতীয়
পোস্টটি শেয়ার করুন

সেন্টমার্টিনে ভ্রমণে গিয়ে আটকা পর্যটকের জন্য ৫০ শতাংশ মূল্যছাড় দিতে হোটেল-রেস্টুরেন্টগুলোকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের নির্দেশে ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে শনিবার দ্বীপে মাইকিং করে তা প্রচার করা হয়। এ ছাড়া পর্যটকদের তেমন কোনো সমস্যা নেই বলে জানান দ্বীপের স্থানীয় প্রশাসন।

এদিকে আটকাপড়া পর্যটকদের মধ্যে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের অন্তত আড়াইশ’ শিক্ষার্থী রয়েছেন।

সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর আহমদের নেতৃত্বে ইউপি সদস্য, কোস্টগার্ড, গ্রাম পুলিশের সদস্যরা যৌথভাবে বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন ও মাইকিং করেন এবং হোটেল মালিকদের মূল্য ছাড়ের নির্দেশ দেন। অন্যথায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়ে দেন।

জানা গেছে, সেন্টমার্টিনে ৭ নভেম্বর ভ্রমণে আসা পর্যটকরা ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে টেকনাফে ফিরতে পারেননি। ২ দিন পেরিয়ে গেলেও সেন্টমার্টিন ত্যাগ করতে পারেননি তারা। সেখানে প্রায় ১ হাজার ২০০ পর্যটক আটকা পড়ে আছেন।

সেন্টমার্টিন হোটেল-মোটেল ব্যবসায়ী মো. আব্দুল্লাহ জানান, পর্যটন মৌসুম শুরু হয় নভেম্বর মাস থেকে। আর এ সময় প্রচুর পর্যটকের আগমন ঘটে দ্বীপে। নভেম্বরের ৮-৯ তারিখ সাপ্তাহিক ছুটি ও রোববার ঈদে মিলাদুন্নবীর ছুটি থাকায় দ্বীপের শতাধিক হোটেল-মোটেল অগ্রিম বুকিং হয়ে গিয়েছিল। হঠাৎ বুলবুলের কারণে সব এলোমেলো হয়ে গেল।

সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর আহমদ জানান, দ্বীপে আটকা পর্যটকদের যাতে কোনো অসুবিধা না হয় এ ব্যাপারে সব ধরনের সহযোগিতা করা হচ্ছে। সেন্টমার্টিন কোস্টগার্ড বাহিনীর সদস্যরাও আমাদের সহযোগিতা করছেন।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, সেন্টমার্টিনে আটকাপড়া পর্যটকদের সার্বক্ষণিক খোঁজ-খবর নেয়া হচ্ছে। ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে তাদের সার্বিক সেবা ও সহযোগিতা দেয়া হচ্ছে। ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসলে পর্যটকদের ফিরিয়ে আনা হবে বলে জানান তিনি।এ ছাড়া ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে।

Comments

comments