রাত ১১:১৮ মঙ্গলবার ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

মির্জাপুরে আজগানা ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলনে সভাপতি মোক্তার, সম্পাদক শহিদুল | নাটোরে “টেকসই উন্নয়ন বাস্তবায়ন ও সমন্বয়” বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত | রাজধানীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ইন্দোনেশিয়ার নাগরিকের মৃত্যু | টানা চারবার ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিলেন ক্যানসারজয়ী নারী | বান্দরবানে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে এপেক্স ক্লাব | বান্দরবানে যে বিদ্যালয়ে এ ভর্তির আগে সাঁতার শিখতে হয়! | ঝালকাঠিতে নদী ভাঙ্গনের কবলে দোকনঘর, নদীগর্ভে ফেরি | আবারও একসঙ্গে রণবীর-ক্যাটরিনা | লভ্যাংশ ঘোষণার পর দুই কোম্পানির দরপতন | আট বিভাগীয় শহরে হবে পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসাকেন্দ্র |

প্রিন্সেস ডায়নার মৃত্যুবার্ষিকী আজ

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : আগস্ট ৩১, ২০১৯ , ১১:২৯ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : বিশেষ দিবস ও ব্যাক্তিত্ব
পোস্টটি শেয়ার করুন

গাড়ি দুর্ঘটনায় নিহত ব্রিটেনের রাজকুমারী লেডি ডায়ানা ফ্রান্সেস স্পেন্সারের মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ১৯৯৭ সালের আজকের এই দিনে প্রিন্সেস ডায়নার মৃত্যু হয়।

১৯৬১ সালের ১ জুলাই জন্ম নেওয়া এই রাজকুমারী ছিলেন যুবরাজ চার্লসের প্রথম স্ত্রী এবং ১৯৮১ হতে ১৯৯৭ পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের যুবরাজ্ঞী। তার পুত্র রাজপুত্র উইলিয়াম ও হ্যারি, ব্রিটিশ মসনদের উত্তরাধিকারীদের তালিকায় যথাক্রমে দ্বিতীয় ও তৃতীয়।

১৯৮১ খ্রীস্টাব্দে বিবাহের পর থেকে ১৯৯৬ খ্রীস্টাব্দে বিবাহ বিচ্ছেদ পর্যন্ত তাকে হার রয়াল হাইনেস দি প্রিন্সেস অফ ওয়েল্‌স বলে সম্বোধন করা হত। এর পরে রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের আদেশক্রমে তাকে শুধু ডায়ানা, প্রিন্সেস অফ ওয়েল্‌স বলে সম্বোধনের অনুমতি দেয়া হয়।

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ডায়ানার পরিচিতি ব্যাপক। তিনি দানশীলতার জন্য খ্যাত ছিলেন। কিন্তু তার এই দাতব্য কার্যক্রম ঢাকা পড়ে যায় বিভিন্ন কেলেঙ্কারীর গুজবে, যার মধ্যে ছিল তার বিয়ে সংক্রান্ত কাহিনী। চার্লসের সঙ্গে ডায়ানার বিয়ে সুখে-শান্তিতে কাটেনি। নব্বইয়ের দশকে ডায়ানার পরকীয়া প্রেমের কাহিনী সারা বিশ্বের পত্র-পত্রিকায় ছড়িয়ে পড়ে। চার্লসের বিশ্বাসঘাতকতাসহ নানা কারণে অবশেষে ১৯৯৬ এ তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে।

চার্লসের সঙ্গে ১৯৮১ খ্রীস্টাব্দে বাগদানের পর থেকে ১৯৯৭ খ্রীস্টাব্দে মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত ডায়ানাকে বলা হত পৃথিবীর সবচেয়ে খ্যাতিমান মহিলা। ফ্যাশন, সৌন্দর্য, এইডস রোগ বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টিতে তার অবদান, এবং ভূমি মাইনের বিরুদ্ধে আন্দোলন তাকে বিখ্যাত করেছে। জীবদ্দশায় ডায়ানাকে বলা হত বিশ্বের সর্বাধিক আলোকচিত্রিত নারী। অবশ্য সমালোচকদের মতে এই খ্যাতি এবং খ্যাতির জন্য প্রচেষ্টাই ডায়ানার জীবনে কাল হয়ে দাঁড়িয়েছিল।

১৯৯৭ খ্রীস্টাব্দে ফ্রান্সের প্যারিস শহরে ডায়ানা ও তার তখনকার প্রেমিক দোদি ফায়েদ এক গাড়ি দুর্ঘটনায় নিহত হন।

Comments

comments