চ্যাটজিপিটিকে টেক্কা দিতে বার্ড এনেছে গুগল

0
217

কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) প্রযুক্তি সম্পন্ন চ্যাটজিপিটি সংবলিত সার্চ ইঞ্জিন ‘বিং’ নিয়ে এসেছে মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট। অন্যদিকে চ্যাটজিপিটিকে টক্কর দিতে এআই চ্যাটবট ‘বার্ড’ নিয়ে এসেছে আরেক মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেট তথা গুগল। এআইয়ের ওপর ভর করে এই দুই প্রতিষ্ঠানের দ্বন্দ্ব এবার বেশ জমে উঠেছে।

ওপেন এআইয়ের চ্যাটজিপিটি ইতোমধ্যে প্রযুক্তি বিশ্বে বেশ সাড়া ফেলেছে। চ্যাটজিপিটির প্রযুক্তি নিয়ে সার্চ ইঞ্জিনের বাজারে মাইক্রোসফট যে আবারও প্রবেশ করবে সেটি একপ্রকার নিশ্চিতই ছিল। সে বিষয়টিরই বাস্তবায়ন করেছে মাইক্রোসফট।

দীর্ঘদিন একপ্রকার নির্বাসনে থাকা বিং সার্চ ইঞ্জিনকে আবারও নতুন করে সামনে এনেছে প্রতিষ্ঠানটি। এবার বিং-এর ব্যাকএন্ডে আছে চ্যাটজিপিটি। গতকাল মঙ্গলবার চ্যাট জিপিটি সংবলিত বিং-এর আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন মাইক্রোসফটের প্রধান নির্বাহী সত্য নাদেলা।

যুদ্ধের ঘোষণা দিয়ে সত্য নাদেল বলেন, প্রতিযোগিতার দৌড় আজ শুরু হলো। বিংকে এখন কিছু জিজ্ঞেস করা হলে সেটি আরও বিস্তারিত উত্তর ব্যবহারকারীর সামনে তুলে ধরবে। বিভিন্ন সফটওয়্যার ক্যাটাগরি সম্পর্কে আমরা যা জেনে থাকি এই প্রযুক্তি সেগুলোর চেহারা কমবেশি পাল্টে দেবে।

মাইক্রোসফটের এই ঘোষণার ঠিক এক দিন আগে চ্যাটজিপিটির প্রতিদ্বন্দ্বী ‘বার্ড’ আনার ঘোষণা দেয় গুগল। গুগলের প্রধান নির্বাহী সুন্দর পিচাই বলেন, দুই বছর আগে আমরা পরবর্তী প্রজন্মের ভাষা এবং কথোপকথন সক্ষমতা প্রকাশ করেছিলাম যেটি ‘ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল ফর ডায়ালগ অ্যাপ্লিকেশন’ বা সংক্ষেপে ল্যামডা প্রযুক্তিনির্ভর। আমরা কথোপকথন সম্পর্কিত একটি এআই মডিউল নিয়ে কাজ করছিলাম যেটিকে আমরা বলছি ‘বার্ড’। এখন আমরা আরও এক কদম সামনে এগোচ্ছি, এটিকে নির্দিষ্টসংখ্যক পরীক্ষামূলক ব্যবহারকারীদের মাঝে উন্মুক্ত করে দিয়ে। সামনের সপ্তাহগুলোতে বার্ড সাধারণ ব্যবহারকারীদের জন্যও উন্মুক্ত হবে।

বার্ড এর পাশাপাশি গুগলের বর্তমান সার্চ ইঞ্জিনেও এআই যুক্ত হচ্ছে বলেও জানান সুন্দর পিচাই। এর মাধ্যমে প্রযুক্তিগত জ্ঞান, ক্ষমতা এবং সৃজনশীলতার একটি মিশ্রণ হবে বলে মনে করেন তিনি। একই সঙ্গে বার্ড একটি ‘সাহসী এবং দায়িত্বশীল’ প্ল্যাটফর্ম হবে বলে দাবি করেছেন গুগল প্রধান।