আগামী ইউরোতেও নিষিদ্ধ রাশিয়া

0
22

ইউক্রেনে সামরিক আগ্রাসনের গত ফেব্রুয়ারিতে কারণে রাশিয়া জাতীয় দল ও দেশটির ক্লাবগুলোকে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা থেকে নিষিদ্ধ করেছিল উয়েফা ও ফিফা। উয়েফা নিশ্চিত করেছে, ২০২৪ ইউরো থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে রাশিয়াকে।

ইউরোপিয়ান ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা (উয়েফা) ও রাশিয়ার ফুটবল ইউনিয়ন কাল জানিয়েছে, ২০২৪ ইউরোর বাছাইপর্বের ড্রয়ে অংশ নেবে না রাশিয়া।

উয়েফার বিবৃতিতে বলা হয়, ‘গত ২৮ ফেব্রুয়ারি উয়েফার নির্বাহী কমিটি এবং গত ১৫ জুলাই কোর্ট অব আরবিট্রেশন ফর স্পোর্টসের সিদ্ধান্তে রাশিয়ার সব দল এ মুহূর্তে নিষেধাজ্ঞায় রয়েছে। উয়েফা ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ২০২২-২৪ বাছাইপর্বের ড্রয়েও রাশিয়াকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি।’

ক্রীড়াক্ষেত্রে সর্বোচ্চ আদালত কোর্ট অব আরবিট্রেশন ফর স্পোর্টসে (সিএএস) গত জুলাইয়ে নিষেধাজ্ঞার বিপক্ষে রাশিয়ার আপিল খারিজ করে দেওয়া হয়।

কাতার বিশ্বকাপেও আগেই নিষিদ্ধ হয়েছে রাশিয়া। এর আগে ইউরোপিয়ান বাছাইপর্বের প্লে অফে উঠেছিল দেশটি। রাশিয়ার নারী জাতীয় দলকেও গত জুলাইয়ে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ইউরো থেকে নিষিদ্ধ করা হয়। তাদের জায়গায় খেলেছে পর্তুগাল।

রাশিয়া ফুটবল ইউনিয়নের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘সিএএসের সিদ্ধান্তের পুরো প্রতিলিপি পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে ইউনিয়ন। সেটি পেলে যাচাই-বাছাই করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

২০২৪ ইউরোর আয়োজক জার্মানি। এই টুর্নামেন্টের বাছাইপর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হবে ৯ অক্টোবর। উয়েফা বাছাইপর্বের এই ড্রয়ে বেলারুশকে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে আয়োজক দেশ জার্মানি তাতে খুশি হতে পারেনি। বেলারুশ রাশিয়ার সামরিক মিত্র—এই অভিযোগে জার্মানি সরকারের তরফ থেকে বেলারুশকে নিষিদ্ধ করার অনুরোধ জানানো হয়েছে উয়েফার কাছে। বাছাইপর্বে ৫৩ দলের এই ড্রয়ে নিরাপত্তার কারণে দুই প্রতিবেশী দেশ বেলারুশ ও ইউক্রেনের একই গ্রুপে পড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।

জার্মানির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ন্যানসি ফায়েসের গত সপ্তাহে বেলারুশকে নিষিদ্ধ করার অনুরোধ করেছিলেন উয়েফার কাছে। ফায়েসেরের কাছে গোপন চিঠি পাঠিয়ে উয়েফা এর উত্তর দিয়েছে বলে জানায় ইউরোপিয়ান ফুটবলের নিয়ন্ত্রক এই সংস্থা।