দেশজুড়ে

ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধ কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

  • 4
    Shares

ফরিদুল ইসলাম রঞ্জু,  ঠাকুরগাঁও: বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ইয়াকুবপুর গ্রামের এক কলেজ ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে পুলিশ কনস্টেবল রিপন সিংহের বিরুদ্ধে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ৩নং ধনতলা ইউনিয়ন পরিষদের বগাদিগীর (লাহিড়ী) রবিন্দ্রনাথ সিংহের ছেলে পুলিশ কনস্টেবল রিপন সিংহের সঙ্গে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ইয়াকুবপুর গ্রামের এক কলেজ ছাত্রীর সাথে ৫বছর আগে মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

সম্পর্ক চলাকালে সে কলেজ ছাত্রীকে বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে যায় এবং বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ২০১৭ সালের ৩রা নভেম্বর দিনাজপুর শহরের হোটেল হিমাচলে কলেজ ছাত্রীর সাথে দৈহিক সম্পর্ক করে। এরপর তার এবং কলেজ ছাত্রীর আত্মীয়ের বাসায় নিয়ে গিয়ে ব্ল্যাকমেইল এবং বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে একাধিকবার দৈহিক সম্পর্ক করে রিপন।

এরপর ওই কলেজ ছাত্রী পুলিশ কনস্টেবলকে বিয়ের কথা বললে সে বিভিন্ন বুঝ-পরামর্শ দিয়ে কলেজ ছাত্রীকে বাড়ি থেকে ১৫ লক্ষ টাকা নিতে বলে। যা কলেজ ছাত্রীর পরিবারের পক্ষে এতো টাকা দেওয়ার সামর্থ্য নাই।

অভিযোগে আরও জানা যায়, বর্তমানে কলেজ ছাত্রী তাকে বিয়ের কথা বললে সে বিভিন্ন তালবাহানা করে এবং ১৫ লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে। কলেজ ছাত্রীর বাবা তাকে ৪ লক্ষ টাকা দিতে সম্মত হন। কিন্তু সে অন্যখানে ১৭ লক্ষ টাকা যৌতুক নিয়ে বিবাহ করার চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভুগী ওই কলেজ ছাত্রী। উপায় না পেয়ে এ বিষয়ে কলেজ ছাত্রী দিনাজপুর পুলিশ সুপার বরাবরে গত ১৮/০৬/২০২০ইং তারিখে একটি লিখিত অভিযোগ করেছে বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবল রিপন সিংহের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

এ ব্যাপারে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কর্মকর্তা মধুসুধন দত্ত জানান, আমরা একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করলে প্রকৃত সত্যতা জানা যাবে।


  • 4
    Shares

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button