দেশজুড়ে

বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটি


প্রেস বিজ্ঞপ্তি: সরকারী বেসরকারী খাতে খুলনা মহানগরসহ দক্ষিন পশ্চিমাঞ্চলের একটি বিভাগীয় শহর হওয়া সত্ত্বেও এখানকার স্বাস্থ্যখাতে আধুনিক চিকিৎসা অত্যন্ত অপ্রতুল। বর্তমানে বিশ্ব মহামারী নোভেল করোনাভাইরাসের তান্ডবে খুলনা অঞ্চল এখন উত্তাল। দৈনিক প্রচুর পরিমানে করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে।

খুলনাতে এই করোনা পরীক্ষার যে পিসিআর ল্যাব আছে সেখানে করোনা পরীক্ষার জন্য মানুষদেরকে প্রায় এক সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হচ্ছে। এত বেশি ভিড় যে রিপোর্ট পেতে ৫/৭ দিন সময় লেগে যাচ্ছে। এতে করে মানুষ হয়রানির শিকার হচ্ছে। সুতরাং অবিলম্বে খুলনাতে আরও তিনটি পিসিআর ল্যাব স্থাপন এবং বাগেরহাট ও সাতক্ষীরা জেলার সদর হাসপাতালে পিসিআর ল্যাব স্থাপনের জোর দাবি জানাচ্ছি।

করোনায় আক্রান্ত মুমুর্ষ রোগাীদের জন্য অক্সিজেনের ব্যবস্থা, ভেন্ডিলেশনের ব্যবস্থা ও আইসিইউ’র ব্যবস্থা সরকারী-বেসরকারী মিলে কয়েকটি আছে মাত্র। অবিলম্বে জরুরী ভিত্তিতে খুলনা মেডিকেল কলেজ, জেনারেল হাসপাতালসহ প্রতিটি উপজেলায় পিসিআর ল্যাব স্থাপনসহ যাবতীয় যন্ত্রসামগ্রী স্থাপনের জোর দাবি জানাচ্ছি। খুলনার স্বাস্থ্যখাত উন্নয়নের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও মাননীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কাছে দৃষ্টি আকর্ষন করছি। যাতে তারা বিষয়টি সম্পর্ক অবগত হয়ে যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ এ বাজেটের অর্থায়নে কাজ শুরু করার জন্য খুলনাবাসীর পক্ষ থেকে জোর দাবি জানাচ্ছি।

বিবৃতিদাতারা হলেন, বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম সমন্বয় কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব শেখ মোশাররফ হোসেন, মহাসচিব শেখ আশরাফ উজ জামান, কোষাধ্যক্ষ মাস্টার বদিয়ার রহমান, সহ-সভাপতি নিজামুর রহমান লালু, শাহিন জামান পন, মীনা আজিজুর রহমান, অধ্যাপক আবুল বাশার, শেখ আব্দুল্লাহ, মামুনুরা জাকির খুকুমনি, যুগ্ম মহাসচিব মো: মনিরুজ্জামান রহিম, মিজানুর রহমান বাবু, মিজানুর রহমান জিয়া, আফজাল হোসেন রাজু, এডভোকেট শেখ হাফিজুর রহমান হাফিজ, রকিব উদ্দীন ফারাজি, এসএম ইকবাল হোসেন বিপ্লব, আলহাজ্ব মিজানুর রহমান টিংকু, এসএম আক্তারউদ্দিন পান্নু, শেখ মোহাম্মদ আলী, সৈয়দ এনামুল হাসান ডায়মন্ড, মো: খলিলুর রহমান, সরদার রবিউল ইসলাম, মো: মনিরুল ইসলাম, অধ্যাপক মো: আজম খান, এস এম দেলোয়ার হোসেন, রসু আক্তার, সরদার জিহাদুল ইসলাম, আতিয়ার রহমান প্রমুখ।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button