দেশজুড়ে

টাঙ্গাইলে বিড়ি শিল্পের উপর ট্যাক্স বৃদ্ধির প্রতিবাদে মানববন্ধন


টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: প্রস্তাবিত ২০২০-২১ অর্থ বছরের বাজেটে বিড়ি শিল্পের উপর বৈষম্যমূলক ট্যাক্স বৃদ্ধির প্রতিবাদে ৬দফা দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়েছে। পুলিশী অনুমোদন না থাকায় পরে পুলিশ এসে মানববন্ধন কর্মসুচি স্থগিত করে দেন। শনিবার সকালে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশন টাঙ্গাইল জেলা শাখার সভাপতি ফজলু মিয়া, সাধারণ সম্পাদক মেহেদি হাসান, সদস্য মাহমুদ, সদস্য তারেকসহ প্রমুখ।

মানব বন্ধনে অর্ধসহস্রাধিক বিড়ি শ্রমিক নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন। বক্তারা বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটে প্রতি প্যাকেট বিড়িতে ট্যাক্স বৃদ্ধি করা হয়েছে ৪ টাকা। যা শতকরা বৃদ্ধিহার ২৮.৫৭ %। অপরদিকে কমদামী সিগারেটে প্রতি প্যাকেটে দাম বৃদ্ধি হয়েছে মাত্র ২টাকা। যা শতকরা বৃদ্ধির হার মাত্র ৫.৪১ %। অর্থাৎ সিগারেটের চেয়ে বিড়িতে প্যাকেট প্রতি ২টাকা বেশি এবং শতকরা ২৩.১৬% বেশি। এটি বিড়ি শিল্পের উপর চরম বৈষম্যমূলক আচরণ। বিদেশী সিগারেট কোম্পানীকে সুবিধা দিতেই এ বৈষম্য করা হয়েছে। যা দেশীয় শিল্পের সাথে বিমাতাসূলভ আচরণ ছাড়া কিছু নয়। দীর্ঘদিন ধরে বিড়ি শিল্প ধ্বংস করার জন্য যে গভীর ষড়যন্ত্র ছিল প্রস্তাবিত বাজেটে তা প্রতিফলিত হয়েছে।

বিড়ি শ্রমিকদের দাবী সমূহ- ১. বিড়ি শ্রমিকদের মজুরী বৃদ্ধি করতে হবে। ২. বিড়ির উপর ট্যাক্স কমাতে হবে। ৩. কমদামী সিগারেট ও বেশী দামী সিগারেটের মূল্য বৃদ্ধি করতে হবে। ৪. নকল বিড়ির ব্যবসা বন্ধ করতে হবে। ৫. ভারতের ন্যায় আমাদের দেশেও বিড়ি শিল্পের সুরক্ষা আইন বাস্তবায়ন করতে হবে। ৬. কোনভাবেই করোনা পরিস্থিতিতে এবং ভবিষ্যতে বিকল্প কর্মসংস্থান তৈরী না করে বিড়ি শিল্পের ক্ষতি করা থেকে বিরত থাকতে হবে।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button