করোনা শনাক্তের খবর পেয়ে সাদুল্লাপুরে বাড়ি থেকে পালালেন মা-মেয়ে

0
6

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা: গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে করোনায় আক্রান্ত মা ও মেয়ে বাড়ি থেকে পালিয়েছেন। তাদের বাড়ি উপজেলার ধাপেরহাট ইউনিয়নের বোয়ালিদহ গ্রামে। তারা হলেন একই গ্রামের মোস্তফা ফকিরের স্ত্রী মিনারা বেগম (৫৫) ও তার মেয়ে রুমানা আক্তার মুক্তা (৩২)।

স্থানীয়রা জানায়, করোনা আক্রান্ত ওই মা-মেয়ে নারায়ণগঞ্জফেরত গার্মেন্টসকর্মী। করোনা শনাক্তের পর গত বুধবার রাতে আইসোলেশনে নেয়ার জন্য তাদের বাড়িতে যায় স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা। এসময় তারা বাড়ির পেছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যান।

ধাপেরহাট ইউনিয়ন স্বাস্থ্য সহকারী ইয়াসমিন খাতুন জানান, গত ৪ জুন মিনারা বেগম ও তার মেয়ের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বুধবার তাদের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে। সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ওইদিন রাতেই তাদেরকে আইসোলেশনে নেওয়ার জন্য উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সদস্যরা এ্যাম্বুলেন্স নিয়ে তাদের বাড়িতে যায়। কিন্তু সবার উপস্থিতি টের পেয়ে বাড়ির পিছন দরজা দিয়ে ওই মা ও মেয়ে পালিয়ে যান।

উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শাহিনুর ইসলাম মন্ডল জানান, ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। প্রায় দুই ঘন্টা ধরে তাদেরকে খোঁজার চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু তাদেরকে পাওয়া যায়নি।

সাদুল্লাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাসুদ রানা জানান, করোনা আক্রান্ত পলাতক মা ও মেয়েকে উদ্ধারের জন্য ওই এলাকায় পুলিশের টিম কাজ করছে। তাদের খোঁজ পেলে নিজেদের বাড়িতে জায়গা না দিয়ে চিকিৎসকের হাতে তাদেরকে তুলে দেয়ারও তিনি এলাকাবাসীর প্রতি আহবান জানান।

তবে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, করোনা পজেটিভ ওই মা ও মেয়ে তাদের এক আত্মীয়ের বাড়িতে অবস্থান করে গতকাল বৃহস্পতিবার উপজেলা স্বাস্থ্যকর্মীদের সাথে যোগাযোগ করেছেন। তারা সুস্থ্য আছেন। বর্তমানে করোনা উপসর্গ না থাকায় তাদেরকে ওই আত্মীয় বাড়ীতেই আইসোলেশনে থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে বলেছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা।