বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

নতুন একগুচ্ছ ফিচার নিয়ে এসেছে জিবি হোয়াটসঅ্যাপ


জিবি হোয়াটসঅ্যাপ থার্ডপার্টির সাহায্যে আপডেট করা হয়েছে। এটা সাধারণত একটি ফোনে একাধিক হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট বানানোর কাজে ব্যবহার করা হয়। এই ফিচারের জন্য়েই এই অ্যাপ্লিকেশনটি জনপ্রিয়।

জেনে নিন যেসব ফিচার নিয়ে এসেছে জিবি হোয়াটসঅ্যাপ

অটো রিপ্লাই: এই ফিচারটির সাহায্যে বন্ধুদের মেসেজের আটো রিপ্লাই করা যেতে পারে। অর্থাৎ, মেসেজ আসার সঙ্গে সঙ্গে অ্যাপ নিজে থেকে একটি রিপ্লাই দেয়ার কথা বলবে।

ডিএনডি: অ্যান্ড্রয়েড ফোনে শুধুমাত্র জিবি হোয়াটসঅ্যাপ-এর ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা যাবে। এই ফিচারটিকে ডু নট ডিসট্রাব ফিচার বলা হয়।

ফিল্টার মেসেজ: জিবি হোয়াটসঅ্যাপের একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিচার হলো ফিল্টার মেসেজ। এর সাহায্যে প্রয়োজনীয় মেসেজগুলোকে ফিল্টার করে নেয়া যায়।

অ্যান্টি-রিভোক ম্যাসেজ: অন্যান্য ফিচারের সঙ্গে এটিও এই অ্যাপের জনপ্রিয় একটি ফিচার।

শেয়ার লাইভ লোকেশন: এই ফিচার শুধু এই অ্যাপে রয়েছে এমনটা নয়। এর সাহায্যে খুব সহজেই নিজের অবস্থান শেয়ার করে নেয়া যায়।

রিভোক মাল্টিপোল মেসেজ: এর সাহায্যে একাধিক মেসেজ বাতিল করা যায়।

সেন্ড ম্যক্সিমাম পিকচার: হোয়াটসঅ্যাপের থেকে বেশি ছবি একবারে পাঠানো যায়। প্রায় ৯০টি ছবি একবারে পাঠানো যায়।

ডাউনলোড স্ট্যাটাস: এর সাহায্যে অন্য বন্ধুদের আপলোড করা স্ট্যাটাস ভিডিও ও ছবি অনায়াসে ডাউনলোড করা যায়।

অমেজিং ফন্ট: এই ফিচারের সাহ্যায্যে নিত্য নতুন ফন্টে মেসেজ টাইপ করার অপশন থাকে।

মার্ক আনরিড মেসেজ: গুরুত্বপূর্ণ মেসেজ আনরিড করার অপশন রয়েছে এই অ্যাপে।

হাইড ইয়োর স্ট্যাটাস: নির্দিষ্ট কিছু মানুষের জন্য নিজের স্ট্যাটাস হাইড করা যায় ।

বেস্ট ইমেজ কোয়ালিটি: এই অ্যাপের সাহায্যে হাই রেজোলিউশনের ছবি পাঠানো যায়।

নোটিফিকেশন: এই ফিচারটিও একটি দারুণ সংযোজন। এর সাহায্যে একটি নোটিফিকেশন পাওয়া যায়, যদি কেউ নিজের প্রোফাইল পিকচার আপলোড করে।

জেনে নিন জিবি হোয়াটসঅ্যাপ যেভাবে ইনস্টল করবেন

এটি একটি থার্ড পার্টি অ্যাপ। তাই গুগুল প্লে স্টোরের বদলে থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নিতে হবে।

নিজের ফোনের সেটিংসে গিয়ে সিকিউরিটি অপশনে ক্লিক করতে হবে।

এরপর আনোন সোর্স অপশনটিকে আনঅ্যাবল করতে হবে।

আননোন সোর্স অপশন আনঅ্যাবল করে এই অ্যাপলিকেশটি-কে ইনস্টল করতে হবে।

এরপর অ্যাপ ওপেন করে মোবাইল নম্বর এন্টার করতে হবে।

মোবাইল নম্বর এন্টার করার পর একটি ওটিপি আসবে, সেই ওটিপি দিয়ে অ্যাপ-এ প্রবেশ করতে হবে।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন