রাত ১০:২৬ রবিবার ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

ঝিনাইদহের বাদপুকুরিয়ার সিরাজের অপকর্ম ফাঁস; দুর্বলতার সুযোগে দেহ ব্যবসা | ফুলছড়িতে ৪ দিনব্যাপী কৃষি মেলার উদ্বোধনে ডেপুটি স্পিকার | ৪ হাত ও ৩ পা নিয়ে বিস্ময়কর এক শিশুর জন্ম! | ঝালকাঠিতে আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে জেলা পুলিশের মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত | ঝালকাঠির রাজাপুরে আলোচিত শুভ হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার | রাবিতে তিন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কুশপুত্তলিকা দাহ | রাজাপুরে অপরাধ দমনের লক্ষ্যে বিভিন্ন স্থানে অভিযোগ বাক্স স্থাপন | কালীগঞ্জ এমপি কাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট; বাগেরহাটকে বিদায় দিয়ে ফাইনালে চুয়াডাঙ্গা | পুঠিয়ায় মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সেনা সদস্য নিহত | ঝিনাইদহে শারদীয় দুর্গাপুজা উপলক্ষে আইন-শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা বিষয়ক মতবিনিময় সভা |

রাস্তাঘাট ভাঙ্গা ও হাঁটুপানিতে থৈ থৈ তুরাগবাসী

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : জুন ১৩, ২০১৭ , ১:৪১ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : ঢাকা
পোস্টটি শেয়ার করুন

এস,এম মনির হোসেন জীবন : বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের প্রভাবে একটানা প্রবল ভারিবর্ষনের কারণে বৃষ্টিতে রাজধানী তুরাগের বেশিরভাগ এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। হাঁটু পানিতে থৈ থৈ করেছে তুরাগবাসী। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন তুরাগের হরিরামপুর ইউনিয়নের ছোট বড় ৩৩টি গ্রামের বাসিন্দা। কয়েকটি গ্রামের মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। প্রবল বৃষ্টিপাতের কারণে অনেক গ্রামের মানুষ পানিবন্দী ,জলাবদ্বতা ও চরম ভোগান্তির শিকার হচেছন। খানাখন্দে ভরা বেশিরভাগ রাস্তা ডুবে থাকায় পথে পথে বিকল হচ্ছে গাড়ি। বেশ কয়েকটি স্থানে রিকশা উল্টে আহত হয়েছেন যাত্রীরা।
গতকাল মঙ্গলবার সকালে তুরাগের নলভোগ,তারারটেক,ফুলবাড়িয়া ,দলিপাড়া বাদালদী গ্রাম পরিদর্শন করে এসব তথ্য চিত্র জানা গেছে।

জানা যায়, রোববার রাত থেকে একটানা প্রবল বৃষ্টিপাত শুরু হয়। অব্যাহত বৃষ্টিতে রাজধানী সর্বউত্তরের তুরাগ থানা হরিরামপুর ইউনিয়ন পরিষদের বিশেষ করে নিন্মাচল নলভোগ, তারারটেক, নয়ানগর, ফুলবাড়িয়া, চন্ডালভোগ, দলিপাড়া, রানাভোলা, রূপায়ন সিটি, যাত্রাবাড়ি গ্রাম সহ বিভিন্ন এলাকার রাস্তাঘাট তলিয়ে গেছে। কোথাও কোথায় নিচু বাসা বাড়িতে পানি উঠেছে। কোথাও কোথাও রাস্তাঘাট তলিয়ে হাঁটুপানি পানি জমে গেছে। জলাবদ্ধতার কারণে তুরাগের নলভোগ সড়ক জুড়ে সৃষ্টি হয়েছে তীব্র যানজট। খানাখন্দে ভরা বেশিরভাগ রাস্তা ডুবে থাকায় পথে পথে বিকল হচ্ছে গাড়ি। বেশ কয়েকটি স্থানে রিকশা উল্টে আহত হয়েছেন যাত্রীরা।

খোঁজ নিয়ে ও সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, তুরাগের নলভোগ, তারারটেক, নয়ানগর, ফুলবাড়িয়া, চন্ডালভোগ, রানাভোলা, সোনারগাঁও জনপথ সড়ক,দিয়াবাড়ি,রূপায়ন সিটি সড়কের বেহাল অবস্থা। খানাখন্দে ভরা বেশিরভাগ এসব রাস্তা বৃষ্টির কারণে ডুবে গেছে। এসকল রাস্তা গুলো দীর্ঘ দিন ধরে সংস্কার না হওয়ার কারণে এই জলাবদ্বতার রূপ নিয়েছে। এলাকার সাধারণ মানুষ পানিবন্দী সহ নানামুখি সমস্যায় মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

বৃহত্তর উত্তরা ট্রাক মালিক সমিতির সভাপতি হাজী মো: আবুল হাসেম বলেন, তুরাগের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের নলভোগ ও তারারটেক গ্রামের প্রধান রাস্তাটি দীর্ঘ দিন ধরে কোন সংস্কার করা হয়নি। সে কারণে রাস্তায় পানি জমে চরম জলাবদ্বতার রূপ নিয়েছে। রাস্তাঘাট তলিয়ে গিয়ে তুরাগ নদী হয়ে গেছে। এটি দ্রুতগতিতে সংস্কার করা দরকার। জলাবদ্বতার কারণে স্থানীয় জনগন চরম ভোগান্তির শিকার হচেছ।

হাজী মো: আবুল হাসেম জানান, আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়ামের অন্যতম সদস্য ও ঢাকা-১৮ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুনের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

বাদালদী গ্রামের বাসিন্দা মো: ইব্রাহীম সরকার জানান, গত এক সপ্তাহ ধরে তুরাগের দলিপাড়া বাদালদী সড়কে সকল ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। প্রায় আধা কিলোমিটার রাস্তাঘাট খানাখন্দ ভরে গেছে।

দলিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা ও ব্যবসায়ী মো: জালাল হোসেন খান বলেন, প্রবল বৃষ্টিপাত ও ভারী বর্ষনের কারণে তুরাগের দলিপাড়া,বাদালদী,উলুদাহা সহ কয়েকটি গ্রামের কাঁচা ও পাকা সড়কে পানি উঠেছে এবং রাস্তা গুলো ডুবে গেছে। ফলে স্থানীয় কয়েকটি গ্রামের প্রায় ২০ থেকে ২৫ হাজার মানুষ জলাবদ্বতা ও চরম ভোগান্তির শিকার হচেছন।

এবিষয়ে জানতে তুরাগের হরিরামপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার হাজী আব্দুল গনির সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করে তার বক্তব্য নেওয়া সম্বভ হয়নি।

ভুক্তভোগী ও এলাকাবাসিরা অভিযোগ করে বলেন, রাজধানীর তুরাগের হরিরামপুর ইউনিয়নে মোট ৯টি ওয়ার্ড রয়েছে। দীর্ঘ দিন ধরে রাস্তাঘাটের কোন উন্নয়ন করা হচেছ। কিছু কিছু রাস্তাঘাটের উন্নয়ন কাজ করা হলেও অধিকাংশ রাস্তাঘাট এখনও উন্নয়ন আর সংস্কার করা হয়নি। ফলে রাস্তাঘাট গুলো খানাখন্দে ভরে গেছে। যানবাহন চলাচলের অনেকটা অনুপযোগী হয়ে উঠেছে।
উত্তরা এভারগ্রীন স্কুলের ১০ শ্রেনীর ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী শহিদুল ইসলাম শিশির জানান,আশপাশের খাল ভরাট থাকার কারণে প্রতিনিয়তই এখানে পানি জমে থাকে। গত দুই দিনের বৃষ্টিপাতে রাজধানীর তুরাগের নলভোগ এলাকা হাঁটুপানিতে ডুবে গেছে। এখনও কমেনি পানি। পানি থাকায় এখানে লুকিয়ে থাকা গর্ত দেখা যায় না। ফলে মাঝেমধ্যেই গাড়ি উল্টে পড়ে কখনও কখনও মানুষও পড়ে যায়। এই এলাকায় বসবাসরত মানুষদের চলাচলে ভীষণ অসুবিধা হচ্ছে।

নলভোগ, তারাটেক ও দিয়াবাড়ি এলাকার একাধিক শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন,এখানে প্রায়ই জলাবদ্ধতা থাকে। আশপাশের খাল ভরে থাকায় পানি সরতে পারে না। ফলে রাস্তায় পানি জমে থাকে। আমাদের চলাচলে খুবই অসুবিধা হয়। স্কুলের বাচ্চারা যেতে আসতে পারে না। রিকশাওয়ালারা ২০ টাকার ভাড়া ৫০ টাকা দাবি করে, বিভিন্ন অজুহাত দেখায়। স্কুলের অসা ও যাওয়ার বেলায় সবসময় রিকশা পাওয়া যায় না।

ভুক্তভোগী এসব এলাকার বাসিন্দাররা বলেন, স্কুলে আসা-যাওয়া করতে শিশুদের খুবই অসুবিধা হয়। কখনও কখনও রাস্তায় জ্যাম লেগে থাকে। নোংরা পানির খুবই বাজে গন্ধ। জমে থাকা পানিতে মশার বংশ বিস্তার বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে রোগের প্রকোপ বাড়ছে। এটা হয় বৃষ্টি হলেই। রাস্তার নিচে কোনরকম স্যুয়ারেজ পাইপ নাই যে পানি সরে যাবে।
এবিষয়ে জানতে তুরাগের হরিরামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও তুরাগ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্বা মো: আবুল হাসিমের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করে তার মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া গেছে।

Comments

comments