বিকাল ৪:৩৮ শুক্রবার ৬ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

ইলিশায় প্রতিবন্ধীদের সিআরএ রিপোর্ট বৈধকরণ সভা অনুষ্ঠিত

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : November 19, 2019 , 10:30 pm
ক্যাটাগরি : বরিশাল
পোস্টটি শেয়ার করুন

ইয়ামিন হোসেন: ভোলা সদরের ২নং পূর্ব ইলিশা ইউনিয়ন পরিষদে প্রতিবন্ধীদের জীবন মান উন্নয়নে করণীয় শীর্ষক সিআরএ রিপোর্ট বৈধকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) ইউনিয়ন পরিষদ হল রুমে প্রতিবন্ধী কমিউনিটি সেন্টার (পিসিসি) এর আয়োজনে ও ট্রান্সফরমড এইড ইন্টারন্যাশনাল এর আর্থিক সহযোগীতায় এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ইলিশা ইউপি চেয়ারম্যান হাছনাইন আহমেদ হাছান মিয়ার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, সদর উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মোঃ দেলোয়ার হোসেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, প্যানেল চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তফা মিয়া, ইউনিয়ন আ’লীগের সহসভাপতি মোঃ হোসেন মিয়া, মোঃ শাহেদ আলী, ইউপি সদস্য মোঃ শাজাহান বেপারী, মোঃ আঃ বারেক, মোঃ ফখরুল ইসলাম মাল, আবদুর রহমান হাওলাদার, মোঃ লোকমান হোসেন, মোঃ কামাল তরফদার, মোঃ শাহে আলম সিকদার প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য ও সিআরএ রিপোর্ট উপস্থাপন করেন, প্রতিবন্ধী কমিউনিটি সেন্টার (পিসিসি) এর প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর রাজন বিন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন প্রতিবন্ধী কমিউনিটি সেন্টার (পিসিসি) এর সুপারভাইজার কল্যান দাস। অনুষ্ঠানে সার্বিক তত্ত্বাবধান করেন, আইএলপিডব্লিউডিভিডি প্রজেক্টের কো-অর্ডিনেটর আশুতোষ। এসময় প্রতিবন্ধী ব্যক্তি, শিক্ষক, ইমাম, এনজিও কর্মী ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, প্রতিবন্ধী (অটিজম) শিশুরা এখন আর সমাজের বোঝা নয়। বর্তমান সরকার প্রতিবন্ধীদের জন্য বিশেষ প্রকল্পের মাধ্যমে তাদেরকে কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দিচ্ছে। তারা বিভিন্ন কর্মমুখী প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজ নিজ ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে। তাই আমাদের সকলের উচিত প্রতিবন্ধীদেরকে আদোর, ভালোবাসা দিয়ে তাদেরকে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া। বক্তারা বলেন, সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন এনজিও সংস্থা অটিজমদের নিয়ে সারা বিশ্বে কাজ করছে। এসব এনজিও সংস্থা প্রতিটি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিকে নিয়ে দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা করে তাদেরকে প্রতিষ্ঠিত করে তুলছে। বিশেষ করে প্রতিবন্ধী কমিউনিটি সেন্টার (পিসিসি) দেশের বিভিন্ন জেলায় কাজ করে আসছে। তাই এই কাজে সর্বাত্মক সহযোগীতার আশ্বাস দেন অতিথিবৃন্দ।

প্রতিবন্ধী কমিউনিটি সেন্টার (পিসিসি) এর প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর রাজন বিন দ্বীপজেলা ভোলায় তাদের দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন। এসময় তিনি বলেন, এই প্রজেক্টটি ভোলায় ৯ বছর ধরে কাজ করবে। জেলা প্রত্যেকটি অটিজম শিশুকে প্রজেক্টের আওতায় এনে তাদেরকে কর্মমুখী হিসেবে গড়ে তোলা হবে বলে তিনি জানান।

Comments

comments