রাজনীতি

শ্রমিক সংখ্যা নিরূপণের আহবান জানিয়েছে বাংলাদেশ শ্রমিক কংগ্রেস


আবু সায়েম মোহাম্মদ সা’-আদাত উল করীম: দেশে শ্রমিকদের প্রকৃত সংখ্যা নিরূপণ ও নিবন্ধনের অনুরোধ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে বাংলাদেশ শ্রমিক কংগ্রেস। গণমাধ্যমে প্রেরিত উক্ত বিবৃতিতে সংগঠনটির উপদেষ্টা ও বাংলাদেশ কংগ্রেসের মহাসচিব এ্যাডভোকেট মোঃ ইয়ারুল ইসলাম বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবর্ষে দেশে চলছে নানামুখী উন্নয়ন কর্ম। এই নানামুখী কর্মযজ্ঞে হাজার হাজার শ্রমিক কাজ করে যাচ্ছে। এসব কাজের বাইরেও দেশের লক্ষ লক্ষ শ্রমিক দেশে ও বিদেশে নানামুখী কাজের মাধ্যমে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জাতিকে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এই বিপুল পরিমাণ শ্রমিক দেশে বা বিদেশে বিভিন্ন সময় প্রাকৃতিক বা মনুষ্যসৃষ্ট দুর্যোগের মুখোমুখী হয় এবং সে সময় সরকার তাদেরকে নানামুখী সহায়তা প্রদান করে থাকে। কিন্তু শ্রমিকদের সঠিক সংখ্যা না থাকায় সহায়তা প্রস্তুতিতে সরকারকে কখনও কখনও সমন্বয়হীনতার মুখোমুখী হতে হয়।

এছাড়াও সরকারকে প্রভাবিত করে সুবিধা আদায় করতে শ্রমিকদের সংখ্যা বাড়িয়ে বলে বিভিন্ন মালিক সংগঠন। শ্রম মন্ত্রনালয়ে শ্রমিকদের সঠিক সংখ্যা না থাকাটা একটি রাষ্ট্রীয় ব্যর্থতা এবং বাংলাদেশে শ্রমিকদের কোন সুনির্দিষ্ট সংখ্যা নেই। সেজন্য পোশাক শ্রমিক, পরিবহন শ্রমিক, নৌ শ্রমিক, বিমান শ্রমিক, রিক্সা শ্রমিক, ভ্যান শ্রমিক, কৃষি শ্রমিক, খনি শ্রমিক, দোকান শ্রমিক, কারখানা শ্রমিক, গৃহ শ্রমিক, নারী শ্রমিক, শিশু শ্রমিক, প্রতিবন্ধী শ্রমিক, প্রবাসী শ্রমিক, বিদেশী শ্রমিক ইত্যাদি শ্রেণীভেদে সকল শ্রমিকের সংখ্যা নিরূপণ ও নিবন্ধন করা দরকার যাতে শ্রমিক সংশ্লিষ্ট যে কোন সরকারী ও বেসরকারী কর্মকান্ড সুচারুরূপে সম্পন্ন করা যায়।

জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধনপত্রের ভিত্তিতে প্রত্যেক শ্রমিককে একশত টাকার বিনিময়ে নিবন্ধন করে ’সুরক্ষাপত্র’ গ্রহন করতে হবে এবং এই সুরক্ষাপত্রের মাধ্যমে দুর্দশাগ্রস্থ শ্রমিকদেরকে সরকারী সহায়তা প্রদান করতে হবে।

দেশের সার্বিক কল্যাণে শ্রমিকের সংখ্যা নিরূপণ ও নিবন্ধনের গুরুত্ব অপরিসীম হওয়ায় এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য শ্রম প্রতিমন্ত্রীর প্রতি বাংলাদেশ শ্রমিক কংগ্রেসের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানিয়ে বলা হয়, এই সংখ্যা নিরূপণ বাস্তবায়িত হলে মুজিববর্ষে এটি একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ হয়ে থাকবে।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button