সকাল ৭:০৭ শুক্রবার ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

শ্রীনগরে বালাশুর বাজারের দোকানে চুরি: প্রতিরোধে নেই কোন ব্যবস্থা

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯ , ১১:১৮ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : ঢাকা
পোস্টটি শেয়ার করুন

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি: শ্রীনগর উপজেলার ভাগ্যকুল ইউনিয়নের বালাশুর বাজারে দি সান টেলিকম নামক একটি দোকানে চুরির ঘটনা ঘটেছে। চুরি প্রতিরোধে বাজার কমিটির নেই কোন প্রদক্ষেপ। এতে করে প্রতিনিয়ত একের পর এক চুরির ঘটনায় ব্যবসায়ীদের মাঝে চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পূর্বে বিভিন্ন সময়ে বালাশুর বাজারে চুরি ঘটনায় ভাগ্যকুল র‌্যাব-১১ ক্যাম্পেও স্থানীয়রা অভিযোগ করেন। র‌্যাব চুরি ঠেকাতে বাজার এলাকায় সিসি ক্যামেরা স্থাপনের জন্য বাজার কমিটিকে নির্দেশ দেয়ার পরেও সংশ্লিষ্ট বাজার কমিটি উদাসীন বলে অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয় ও ব্যবসায়ীরা জানান, গত ০৯ সেপ্টেম্বর সোমবার দিবাগত গভীর রাতে বালাশুর বাজারের দি সান টেলিকম নামক ওই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের টিনের চালা কেটে ও দোকানের সিলিং খুলে চোর ভিতরে প্রবেশ করে। দোকানে থাকা নতুন ও পুরাতন মোবাইল সেট নিয়ে যায়। দি সান টেলিকমের কর্ণধার গাজী সালাউদ্দিন লিটন বলেন, প্রায় ২ শতাধিক মোবাইলসহ প্রায় ৪ লাখ টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায় সংঘবদ্ধ চোরেরা। এনিয়ে আমার দোকানে সর্বমোট ৫ বার চুরি হল। চুরির ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করবেন বলে তিনি জানান।

খোঁজখবর নিয়ে জানাযায়, বালাশুর বাজারে বর্তমানে সাড়ে ৩ শতাধিক বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। বাজার কমিটির কোনও নৈশ প্রহরী নেই বলে জানাযায়। গত কয়েক মাসে ওই বাজারের অলিম্পাস ষ্টিডিও, ঢালী মেডিক্যাল হলসহ একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে একই কায়দায় চুরির ঘটনা ঘটেছে। একের পর এক চুরির ঘটনায় বাজার ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তারা জানান, চুরি প্রতিরোধে বাজার কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের বিষয়ে বলা হলেও তারা তা ব্যবস্থা নেননি। প্রতিনিয়ত চুরির ঘটনায় লাখ লাখ টাকা লোকসানের সম্মূক্ষিন হচ্ছেন তারা।

বালাশুর বাজার কমিটির সভাপতি মো. হাসু মোল্লার কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, গত রাতের চুরির ঘটনাটি আমি অবগত নই। তবে আগামীকাল বাজার কমিটির মিটিং রয়েছে। চুরি প্রতিরোধে সিসি ক্যামেরা ও নাইট গাডের বিষয়ে আলাপ করা হবে। এর আগেও র‌্যাব ক্যাম্পের নির্দেশে বাজারে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের বিষয়ে আলোচনা হয়েছিল। এতে দোকান মালিক ও ব্যবসায়ীরা এগিয়ে আসেননি।

শ্রীনগর থানার ওসি (তদন্ত) মো. হেলাল উদ্দিন জানান, এ বিষয়ে কেউ অভিযোগ করতে থানায় আসেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Comments

comments