করোনা সঙ্কট

করোনায় আরও ৭ লাখ মৃত্যু হতে পারে ইউরোপে: ডব্লিউএইচও


শীত মৌসুমের শুরু থেকেই ইউরোপে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। এ জন্য করোনার এই ধাক্কায় ইউরোপের দেশগুলোতে আরও পাঁচ লাক মানুষের মৃত্যু হতে পারে বলে আগেই উদ্বেগ জানিয়েছিল ডব্লিউএইচও। এবারে নতুন শঙ্কার কথা জানালো সংস্থাটি। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে সংস্থাটি জানিয়েছে, শীত পেরিয়ে বসন্ত আসার আগে করোনায় আরও ৭ লাখ মানুষের মৃত্যু হতে পারে শুধু ইউরোপেই।

ডব্লিউএইচওর তথ্য অনুযায়ী, মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ইউরোপ মহাদেশের ৫৩ দেশে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা ১৫ লাখ। নতুন আরও ৭ লাখ মৃত্যু হলে এই সংখ্যা পৌঁছাবে ২২ লাখে।

মঙ্গলবার ডব্লিউএইচওর ইউরোপ শাখা থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, “ইউরোপের ৫৩ টি দেশের মধ্যে ৪৯ টি দেশের হাসপাতালগুলোর আইসিইউতে উপচে পড়ছে করোনা রোগী। চলতি বছর মার্চের পর গত ছয় মাসে সংক্রমণের এত বিস্তার ইউরোপে দেখা যায়নি।”

আরও বলা হয়, “এই অবস্থা যদি অব্যাহত থাকে, তাহলে শীত শেষে বসন্ত আসার আগেই ইউরোপে করোনায় আরও ৭ লাখ মৃত্যু ঘটবে। মধ্য এশিয়া ও ইউরোপে বর্তমানে মৃত্যুর প্রধান কারণ করোনা।”

করোনাভাইরাসের ডেল্টা ধরনের বিস্তার, টিকাদান কর্মসূচির ধীরগতি, মাস্ক পরা ও শারীরিক দূরত্ব মেনে চলার ক্ষেত্রে শিথিলতা, এসব কারণেই ইউরোপে করোনা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা।

সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, গত সপ্তাহে প্রতিদিন ইউরোপে কোভিডে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন প্রায় ৪ হাজার ২০০ জন। এই সংখ্যা সেপ্টেম্বরের তুলনায় দ্বিগুণ। চলতি বছর সেপ্টেম্বরে প্রতিদিন করোনায় মৃতের সংখ্যা ছিল প্রায় ২ হাজার ১০০।

ডব্লিউএইচওর ইউরোপ শাখার পরিচালক হ্যান্স ক্লাগ পৃথক এক বিবৃতিতে বলেন, “ইউরোপ ও মধ্য এশিয়ার করোনা পরিস্থিতি খুবই আশঙ্কাজনক। আমাদের সামনে একটি কঠিন ও চ্যালেঞ্জিং শীত অপেক্ষা করছে।”

করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এরইমধ্যে লকডাউন কার্যকর করেছে অস্ট্রিয়া। আংশিক লকডাউন চলছে নেদারল্যান্ডসে।

সূত্র: বিবিসি


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button