খেলাধুলা

সিরিজ ২-১ নাকি ২-২, আইসিসিকে সিদ্ধান্ত নিতে বলল ইসিবি

  • 5
    Shares

করোনার হানায় ভারত ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার পঞ্চম টেস্ট বাতিল হয়ে যাওয়ার পর থেকে এ নিয়ে চলছে নানা বিতর্ক। এই টেস্ট এবং সিরিজের মীমাংসার জন্য আইসিসির দ্বারস্থ হলো ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড- ইসিবি। সিরিজের ফলাফল কি হবে- ২-২ নাকি ২-১? এ নিয়েই মূলত প্রশ্ন তুলেছে ইসিবি।

করোনা আশঙ্কার কারণে পঞ্চম টেস্ট খেলতে রাজি হয়নি ভারত, সে কারণে ইংল্যান্ডকেই কি জিতিয়ে দেয়া হবে? এ নিয়েই উঠে এসেছে নানা প্রশ্ন। আইসিসিকে একটি চিঠি লিখেছে ইসিবি। সেই চিঠির মাধ্যমে তারা অনুরোধ জানিয়েছে, দ্রুত এর মীমাংসা করার জন্য।

যদিও বাতিল হওয়া টেস্টটি পরের গ্রীষ্মে আয়োজনের কথা চলছে। বিসিসিআই এবং ইসিবি এ নিয়ে আলোচনাও করছে। সেক্ষেত্রে বাতিল হওয়া টেস্টটি এই সিরিজের অন্তর্ভুক্ত হবে না। টেস্টটি একটি সিঙ্গেল টেস্ট হিসেবেই সে ক্ষেত্রে ধরা হবে। আর সেটা হলে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আওতায় সেই টেস্ট পড়বে না। সে যাইহোক না কেন, পুরো বিষয়টিই এবার আইসিসির আয়ত্বাধীন করে দিয়েছে ইসিবি।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) টিম ইন্ডিয়ার জুনিয়র ফিজিও যোগেশ পারমারের কোভিড টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তারপরেই ম্যানচেস্টার টেস্ট নিয়ে আশঙ্কা তৈরি হয়। তবে ক্রিকেটারদের আরটি পিসিআর টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভই আসে। যে কারণে বিসিসিআই চেয়েছিল, নির্ধারিত দিনেই যেন টেস্টটি মাঠে গড়ায়।

বিসিসিআই কর্তারা ওইদিন সকাল থেকেই ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট এবং ইসিবির সঙ্গে ম্যানচেস্টার টেস্টের ভবিষ্যৎ নিয়ে কয়েক দফায় আলোচনাতেও বসেন। টেস্টটি শেষ পর্যন্ত বাতিল করার বিষয়ে কথাবার্তাও চলছিল।

আসলে ভারতীয় বোর্ড চায়নি, আইপিএলে নতুন করে করোনার প্রভাব পড়ুক। কেননা, ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগের ঠিক পরেই সংযুক্ত আরব-আমিরাতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে। তাই আইপিএল কয়েক দিনের জন্য পিছিয়ে দেওয়াও সম্ভব নয়।

এমনকী, ম্যানচেস্টার টেস্ট বাতিল হলে ইসিবিকে আর্থিক ক্ষতির মুখেও পড়তে হবে। তবে শেষ রক্ষা হলো না। বাতিলই করে দিতে হলো ম্যানচেস্টার টেস্ট। যার ফলে ২-১ ব্যবধানেই শেষ হয় পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। ভারত দুটিতে জয় পেলে একটি টেস্টে জয় নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় ইংল্যান্ডকে।


  • 5
    Shares

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন