বিকাল ৪:০৮ বৃহস্পতিবার ১৭ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং

নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম না করার আহ্বান ইমরানের

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : অক্টোবর ৭, ২০১৯ , ১১:২৪ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : আন্তর্জাতিক
পোস্টটি শেয়ার করুন

নিয়ন্ত্রণরেখা অতিক্রম না করতে আজাদ জম্মু কাশ্মীরের জনগণকে সতর্ক করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। দু’মাস ধরে ভারত দখলীকৃত কাশ্মীরে অপ্রত্যাশিত এক অচলাবস্থার শিকারে পরিণত হয়েছেন কাশ্মীরের জনগণ। তাদের সমর্থনে নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করে যেন আজাদ জম্মু কাশ্মীরের কেউ সেখানে প্রবেশ না করেন সে বিষয়ে সতর্ক করেছেন ইমরান।

তিনি এক টুইটে বলেছেন, ভারত দখলীকৃত জম্মু কাশ্মীরের জনগণের বিরুদ্ধে ২ মাসের বেশি যে কারফিউ তাতে তারা অমানবিক অবস্থার মুখোমুখি। তাদের এই কষ্টে আজাদ কাশ্মীরের জনগণের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। এ বিষয়টি আমি বুঝতে পারি। ইমরান বলেন, তাই বলে আজাদ কাশ্মীর থেকে মানবিক সহায়তা নিয়ে বা কাশ্মীরের লড়াইয়ের প্রতি সমর্থন জানিয়ে লড়াই করতে নিয়ন্ত্রণ রেখা কেউ অতিক্রম করলে তা ভারতের প্রচারণায় ভূমিকা রাখবে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডন।

ইমরান খান ভারতের দৃষ্টিভঙ্গি ব্যাখ্যা করে বলেন, কাশ্মীরিদের জাতিগত লড়াই থেকে বিশ্বের দৃষ্টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে চায় ভারত।তারা কাশ্মীরিদের বিরুদ্ধে নৃশংসতা চালাচ্ছে। আর এটাকে পাকিস্তান পরিচালিত ইসলামপন্থি সন্ত্রাস বলে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে। তাই নিয়ন্ত্রণ রেখা অতিক্রম করলে ভারতের হাতে একটি ইস্যু বা অজুহাত তুলে দেয়া হবে। তারা কাশ্মীরিদের বিরুদ্ধে নিষ্পেষণ বৃদ্ধি করবে।

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের অবরুদ্ধ জনগণের প্রতি সংহতি প্রকাশ করে স্বাধীনতাপন্থি জম্মু কাশ্মীর লিবারেশন ফ্রন্ট মুজাফফরবাদে শুক্রবার বিক্ষোভ করে। এতে যোগ দেয় হাজার হাজার মানুষ। তার একদিন পরেই শনিবার ওই পরামর্শ দেন ইমরান খান। ওদিকে ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত অভিযোগ করেছেন, এ বছরের শুরুর দিকে সীমান্ত অতিক্রম করে তারা পাকিস্তানের বালাকোটে সন্ত্রাসীদের যে ঘাঁটি ধ্বংস করে দিয়েছিলেন তা সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তিনি আরো বলেছেন, এসব ক্যাম্পের কমপক্ষে ৫০০ ব্যক্তি বিতর্কিত কাশ্মীর অঞ্চলে প্রবেশের অপেক্ষায় আছে। তবে এমন বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করেছে পাকিস্তানের বেসামরিক ও সামরিক নেতারা।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ভারতের এমন বেপরোয়া উদ্যোগ বা বক্তব্যকে মানবিক ভীতিকর অবস্থা থেকে আন্তর্জাতিক দৃষ্টি অন্যদিকে সরিয়ে নেয়া বলে মন্তব্য করেছেন। ভিন্ন এক বিবৃতিতে এমন বক্তব্যে হুঁশিয়ারি দিয়েছে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। তারা বলেছে, ভারতের অপ্রমাণিত এসব অভিযোগ একটি মিথ্যা ফ্লাগ অপারেশনের ক্ষেত্র তৈরি করতে পারে।

Comments

comments