সকাল ৭:১১ শুক্রবার ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

বঙ্গবন্ধু জাতীয় টুর্নামেন্টের ফাইনালে বিজয়ী মির্জাপুর পৌরসভা

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯ , ৮:৩০ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : ঢাকা
পোস্টটি শেয়ার করুন

রাব্বি ইসলাম, স্টাফ রিপোর্টারঃ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় ফুটবল টুর্নামেন্টে (অনুর্ধ্ব-১৭) ফাইনালে বাঁশতৈল ইউনিয়ন একাদশ দলকে ০২-০ গোলে হারিয়ে বিজয়ী হয়েছে স্বাগতিক মির্জাপুর পৌরসভা একাদশ দল। এতে উল্লাসে মেতে উঠেছে পৌরবাসী।

উপজেলার পৌর সদরে অবস্থিত শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে সমাপনী দিনে বিকাল ৪টায় খেলার শুভ উদ্বোধন করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো: একাব্বর হোসেন এম.পি।

খেলার প্রথমার্ধে দু দলের খেলোয়ারদের মধ্যে চলে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। প্রথমার্ধে ডি-বক্সের ভেতরে পেনালটি পেয়েও সুযোগ হারায় পৌরসভা একাদশ দল। প্রথমার্ধে দু পক্ষেই গোল শূন্য অবস্থায় ছিলো। তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে এবং মাঝামাঝি সময়ে দুর্দান্ত খেলে ২ বল জালে গড়িয়ে এগিয়ে যায় স্বাগতিক পৌরসভা দল। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আর কোনো দল গোল না করতে পারলে বিজয়ী হয় পৌরসভা একাদশ দল।

পরে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আবদুল মালেকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় সাংসদ মোঃ একাব্বর হোসেন।

সে সময় বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক খেলোয়াড় কায়সার হামিদ, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মীর এনায়েত হোসেন মন্টু, পৌর মেয়র সাহাদৎ হোসেন সুমন, উপজেলা সহকারি কমিশনার ভূমি মো. মঈনুল হক, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আজহারুল ইসলাম, থানা অফিসার ইনচার্জ মো. সায়েদুর রহমান, উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা সরকার হিতেশ চন্দ্র পুলক, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মো. মনির হোসেন, সাবেক সম্পাদক ও বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদ খ.মোফাজ্জল হোসেন দুলাল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ওয়াহিদ ইকবাল, মো. মাজহারুল ইসলাম শিপলু, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সোহেল রানা, যুবলীগের আহবায়ক শামীম আল মামুন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি হাজী আবুল হোসেন, পৌর কাউন্সিলর এস এম রাশেদ, আমিরুল কাদের লাবণ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও বিভিন্ন ইউপি চেয়ারম্যান, সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ, বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

খেলায় ধারাভাস্যকার হিসেবে ছিলেন, কবি আসাদুজ্জামান বাবুল ও আল-মামুন। খেলা চলাকালীন সময় মাঠের চারপাশে হাজারো জনতা ভিড় করে খেলা উপভোগ করেন।

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এবং মির্জাপুর উপজেলা প্রশাসন ও ক্রীড়া সংস্থা কর্তৃক আয়োজিত টুর্নামেন্টটি ১১ সেপ্টেম্বর ফাইনাল খেলার মধ্য দিয়ে সমাপ্ত ঘটে। যেখানে ফাইনালসহ মোট ১৫টি খেলা মাঠে গড়িয়েছে। খেলা শেষে বিজয়ী ও রানার্সআপদলের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন অতিথিবৃন্দরা।

Comments

comments