আজ বিশ্ব মহাসাগর দিবস

0
11

কে এস এম আরিফুল ইসলাম: আমাদের এই দুনিয়ায় রয়েছেন নানা রকম রহস্যময় প্রকৃতি আর তারই মাঝে অন্যতম একটি হলো সাগর মহাসাগর। মানুষ আদিকাল থেকে দিন দিন নানান নতুন বিষয়ের খোঁজ নিয়ে ব্যস্ত থাকে সাগর-মহাসাগর গুলোতে। আর সেই থেকেই অনেক অজানা বিষয় আমাদের সামনে চলে আসে।

আজকের এই দিনটি সম্পর্কে ঐতিহাসিক ভাবে পাই যে, ১৯৯২ সালে ব্রাজিলের রিও ডি জেনেরোতে ধরিত্রী সম্মেলনে এ দিবস পালনের সিদ্ধান্ত হয়। এরপর ২০০৮ সালের ৫ ডিসেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৬৩তম অধিবেশনে গৃহীত ১১১নম্বর প্রস্তাব অনুযায়ী ২০০৯ সাল থেকে দ্যা ওসেন প্রজেক্ট এবং ওয়ার্ল্ড ওসেন নেটওয়ার্কের মাধ্যমে প্রতি বছরের ৮ জুন বিশ্ব মহাসাগর দিবস হিসেবে পলিত হচ্ছে।

মূলত ২০০৯ সাল থেকে বিশ্ববাসী ৮ জুনকে পালন করে আসছে বিশ্ব মহাসাগর দিবস হিসেবে। দিবসটি পালনের মূল উদ্দেশ্য হলো, সাগর-মহাসাগর সম্পর্কে মানুষের সচেতনতা বাড়িয়ে তোলা।

আমাদের এই দুনিয়ায় সাগর-মহাসাগর হলো অক্সিজেনের বড় জোগানদাতা। পৃথিবীর ৩ ভাগই পানি। মাত্র ১ ভাগ স্থল। সমুদ্র ও উপকূলবর্তী এলাকার উদ্ভিদ ও প্রাণিজগত আজ বিপন্ন প্রায়। মহাসাগরগুলো বায়ুমণ্ডলের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ দখল করে আছে। কিন্তু মানুষের নানা কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি জলবায়ুর বৈরী থাবায় মহাসাগরগুলোর প্রতিবেশ ব্যবস্থা প্রতিনিয়ত বদলে যাচ্ছে। ধ্বংস হচ্ছে এর জীববৈচিত্র্য।

এই ধ্বংসযজ্ঞ থেকে সচেতনতা সৃষ্টিতে বিশ্ব মহাসাগর দিবস পালন করা হয়ে থাকে। তাই আমাদের সকলের উচিত এই দুনিয়ার জীববৈচিত্র্য সুন্দরভাবে রাখতে হলে আমাদের সকলের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। আসুন আমরা সকলেই আমাদের এই প্রকৃতিকে সুন্দরভাবে গুছিয়ে নিতে সকলে ঐক্যবদ্ধ হই।