করোনা সঙ্কট

করোনার সঙ্গে এবার ব্ল্যাক ফাঙ্গাস নিয়ে পর্যবেক্ষণে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর


করোনাভাইরাস আক্রান্ত ও মৃত্যুর পাশাপাশি নতুন করে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস (কালো ছত্রাক) ‘গভীর পর্যবেক্ষণে’ রেখেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ব্ল্যাক ফাঙ্গাস নিয়ে আতঙ্কিত হওয়া যাবে না। তবে যাদের অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস মেলাইটাস রয়েছে তাদের একটু সতর্ক থাকতে হবে। ব্ল্যাক ফাঙ্গাস সত্যিকার অর্থেই অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য বিপদের কারণ হতে পারে। মানুষ সচেতন থাকলে কোনো অবস্থাতেই ব্ল্যাক ফাঙ্গাস নিয়ন্ত্রণের বাইরে যেতে পারবে না।

বুধবার (২৬ মে) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বুলেটিনে সংস্থাটির মুখপাত্র ও রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক (সিডিসি) অধ্যাপক নাজমুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

ব্ল্যাক ফাঙ্গাস প্রতিরোধে চিকিৎসা পদ্ধতি, চিকিৎসা ব্যয় ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ে সুনির্দিষ্ট গাইডলাইন তৈরি করছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

তিনি বলেন, ব্ল্যাক ফাঙ্গাস নিয়ে উদ্বেগ বা উৎকণ্ঠার কোনো কারণ নেই। রোগটি আদিকাল থেকে পরিবেশের সঙ্গে আছে।

অধ্যাপক নাজমুল ইসলাম বলেন, ব্ল্যাক ফাঙ্গাস নিয়ে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে দুজন রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। যতক্ষণ পর্যন্ত সব পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে নিশ্চিত ফলাফল হাতে না আসবে, ততক্ষণ পর্যন্ত আমরা নিশ্চিত কিছু বলতে পারব না। তথ্য-উপাত্ত হাতে পেয়ে যদি সবাইকে জানাই তাহলে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা তৈরি হবে না। বর্তমান পরিস্থিতিতে আমাদের পরস্পর পরস্পরকে সহযোগিতা করা উচিত।

চিকিৎসা ব্যয় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ব্ল্যাক ফাঙ্গাস একটি বিরল জাতের রোগ, এটি খুব বেশি সংখ্যক মানুষের হয় বলে তথ্য-উপাত্ত আমাদের বলে না। তবে অবশ্যই এর চিকিৎসা ব্যয়বহুল, এতে কোনো সন্দেহ নেই।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন