রাজধানী

ছুটির আমেজে ফাঁকা রাজধানী


করোনার সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধের তৃতীয় দিন চলছে। গত দুইদিনের তুলনায় আজ রাস্তায় মানুষ ও যানবাহনের চাপ অনেকটা কম। শুক্রবার রাজধানীর লিংকরোড, গুলশান-১, ২ ঘুরে এ চিত্র দেখা যায়।

আজ সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় বিধিনিষেধের মধ্যেও যেসব অফিস খোলা ছিল সেগুলোও বন্ধ। তাই রাস্তায় গাড়ির চাপ কমেছে। অন্য দুইদিন অফিস খোলা থাকায় রাস্তায় গাড়ি ও মানুষ বেশি ছিল এছাড়া করোনার প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় মানুষও খুব জরুরি কাজ কাজ ছাড়া তেমন একটা বাসা থেকে বের হচ্ছেন না।

সরেজমিনে দেখা যায়, অন্য দুই দিনের তুলনায় আজ সকাল থেকেই রাস্তায় গাড়ির চাপ অনেকটা কম। খুব জরুরি কাজে বা নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য কিনতে বাসা থেকে বের হয়েছেন কয়েকজন। গত দুই দিনের তুলনায় আজ রাস্তায় প্রাইভেট কার ও রিকশার সংখ্যাও তুলনামূলক অনেক কম।

এদিকে রাস্তায় মানুষেরর চাপ কম থাকায় আজ চেকপোস্টেও তেমন ব্যস্ততা দেখা যায়নি। দুয়েকজন যাত্রী চেকপোস্ট দিয়ে মাঝে মধ্যে যাচ্ছেন, তাদের মুভমেন্ট পাস আছে কি না চেক করতে দেখা গেছে পুলিশ সদস্যদের।

গুদারাঘাট চেকপোস্টে কর্মরত সার্জেন্ট মো. সাহেদ বলেন, অফিস বন্ধ হওয়ায় রাস্তায় আজ তেমন একটা মানুষ নেই। এ পর্যন্ত যারা বের হয়েছেন, তাদের মুভমেন্ট পাস চেক করেছি। তারা জরুরি প্রয়োজনেই বের হয়েছেন।

প্রসঙ্গত, করোনার সংক্রমণ রোধে সরকার দেশে কঠোর বিধিনিষেধ জারি করেছে। ১৪ এপ্রিল থেকে এই বিধিনিষেধ কার্যকর হয়েছে; যা চলবে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত।


Related Articles