মিডিয়া

গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীদের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ

গণজাগরণ মঞ্চের মিছিলের শ্লোগানকে কেন্দ্র করে দায়ের করা হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলায় জামিনাদেশের পর আদালত প্রাঙ্গণে পুলিশের উপস্থিতিতেই গণজাগরণ মঞ্চের নেতাকর্মীদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। এসময় গণজাগরণ মঞ্চের বেশ কয়েকজন কর্মী আহত হন।

সকাল সাড়ে এগারোটায় আদালতের কার্যক্রম শুরু হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার ও সনাতন উল্লাসের জামিনাদেশ প্রদান করেন বিজ্ঞ আদালত। গণমাধ্যমে প্রতিক্রিয়া জানানোর পর আদালত প্রাঙ্গণেই মঞ্চের নেতাকর্মীদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা। লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলার পাশাপাশি তারা নির্বিচারে ইটপাটকেল বর্ষণ করে। পুলিশ এসময় নিষ্ক্রিয় দর্শকের ভূমিকায় অবতীর্ণ ছিল।

ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার বলেন, “আদালতেও যখন পুলিশের উপস্থিতিতে সন্ত্রাসীরা লাঠিসোটা, অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে হামলা করে তখন এই দেশটাকে আর কোনোভাবেই সভ্য দেশ বলা যায় না। এই দেশটা এখন মাস্তান, সন্ত্রাসী আর ছিনতাইকারীদের অভয়ারণ্য। এই চোর ডাকাতরা ক্ষমতায় থাকবে, লুটপাট করবে, ধর্ষণ করবে, খুন করবে কিন্তু কিছুই বলা যাবে না। প্রতিবাদ করলে মামলা করবে, আদালতে গেলে সন্ত্রাসী হামলা করবে।”

তিনি বলেন, “আদালতেও যদি হামলা হয় তাহলে আদালতের প্রতি মানুষ কিভাবে শ্রদ্ধা জানাবে?”

ন্যক্কারজনক এই সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে আজ বিকাল ৫ টায় শাহবাগে বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দিয়েছে গণজাগরণ মঞ্চ।

Comments

comments

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Close