সকাল ৮:৩৪ বৃহস্পতিবার ২২শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

ব্রেকিং নিউজ:

একদিনেই সৌদি আরব ছাড়লেন ১ হাজারের বেশি সৌদি নারী! | কিশোরকে অ'পহ'রণ করে ৪০ দিন যৌ'নদা'স হিসেবে ব্যবহার ৩৮ বছরের নারীর | কাতারে নিজেদের বিপদ নিজেরাই ডেকে আনছেন বাংলাদেশিরা | অল্পের জন্য বেঁচে গেলো তিন ক্রিকেটারের! | সরকারি জমি দখলকে ফৌজদারি কার্যবিধির অধীনে বিচারের আইন হচ্ছে: ভূমিমন্ত্রী | ইমরান খানের সঙ্গে দেখা করতে চান বিল গেটস | চীনের সঙ্গে যুদ্ধে কয়েক ঘণ্টায় পরাজিত হবে যুক্তরাষ্ট্র! | ভারতের সাবেক অর্থমন্ত্রী চিদম্বরম গ্রেপ্তার | রামপালে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত শহীদদের স্বরনে শোক সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত | মানুষের শরীরে প্রতিস্থাপিত হবে শূকরের হার্ট ও কিডনি! |

নগ্ন ছবিতে আসক্ত স্বামী, শিক্ষা দিতে যা করলেন স্ত্রী!

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : জুলাই ১৬, ২০১৭ , ৫:১৬ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : বিবিধ
পোস্টটি শেয়ার করুন

স্বামীর সবকিছুই যে স্ত্রীর পছন্দ হবে, তা তো হতে পারে না। বরং বিয়ের পরও স্বামীর অনেক অভ্যাসই মেনে নিতে পারেন না স্ত্রী। তা নিয়ে অশান্তিও হয়। কিন্তু, স্বামীর কু-অভ্যাস ছাড়াতে বা বলা ভাল বদলা নিতে এক ব্রিটিশ নারী যে কাণ্ড করেছেন, তা এককথায় চমকপ্রদ। ওই নারীর স্বামীর পর্নো সাইটের প্রতি আসক্তি ছিল। বহুবার বলেও সেই অভ্যাস ছাড়াতে পারেননি ওই নারী। শেষপর্যন্ত বদলা নিতে নিজের স্তনের ছবি পর্ন সাইটে আপলোড করে দেন ওই নারী। তাও ওই নারীর স্বামী যে পর্ন সাইটটি দেখেন, সেই পর্ন সাইটেই!

‘মুনসেট’ নামে ব্রিটেনের একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইটে নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানিয়েছেন ৪০ বছরের ওই নারী। তিনি জানিয়েছেন, তিনি যখন অন্তঃস্বত্বা ছিলেন, তখন প্রতিরাতেই পর্নো সাইটে গিয়ে নারীদের নগ্ন ছবি দেখতেন তাঁর স্বামী। বহুবার বারণ করেছিলেন। তাঁর স্বামী শোনেননি। উল্টো অশান্তি করেছেন। এরপর স্বামীকে উচিত শিক্ষা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন ওই নারী।

তিনি বলেন, ‘একদিন রাতে স্বামী ঘুমিয়ে পড়ার পর, আমি নিজের স্তনের ছবি তুলে পর্নো সাইটে পোস্ট করে দিই। ’ স্ত্রীর এই কীর্তির কথা ঘুণাক্ষরেও টের পাননি ওই স্বামী। এরপর যথারীতি অভ্যাসবশত ওই পর্নোসাইটটি খোলেন তিনি এবং সেখানে নিজের স্ত্রীর স্তনের ছবি দেখে মেজাজ হারান। ওই নারী বলেন, ‘পর্ন সাইটে আমার ছবি দেখার পর অত্যন্ত রেগে যান আমার স্বামী। বলেন, আমি নাকি ওর থেকেও খারাপ কাজ করেছি। ’

এই নারীর কীর্তি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। অনেকেই ওই নারীর এই পদক্ষেপকে সমর্থন করেছে। আবার কেউ কেউ তার দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে সমালোচনাও করেছেন। তাদের মতে, ওই নারীর এই হঠকারি সিন্ধান্তে হয়ত শেষ পর্যন্ত বিয়েটাই ভেঙে যাবে!

Comments

comments