সন্ধ্যা ৬:১৪ সোমবার ১৯শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

তুরাগে দু’টি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১, আহত ৩৫

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : জুলাই ১৫, ২০১৭ , ৩:৪৮ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : ঢাকা
পোস্টটি শেয়ার করুন

এস,এম মনির হোসেন জীবন : রাজধানীর তুরাগের তালতলা এলাকায় দু’টি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১জন গাড়ি চালক নিহত এবং শিশু,মহিলা সহ কমপক্ষে ৩০ থেকে ৩৫জন যাত্রী আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে দুই গাড়ি চালক সহ ৫জনের অবস্থা গুরুতর। নিহত গাড়ি চালকের পরিচয় পাওয়া যায়নি। খবর পেয়ে তুরাগ থানা পুলিশ,উত্তরা ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্বার করে তুরাগের ইস্ট ওয়েস্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল সহ অন্যান্য ক্লিনিকে নিয়ে ভর্তি করা হয়েছে।
আজ শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তুরাগের বেরীবাঁধ কামারপাড়া-আশুলিয়া সড়কের তালতলা এলাকায় দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

তুরাগ থানার ওসি (অপারেশন) মো: দুলাল হোসেন আজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
প্রত্যক্ষদর্শী,পুলিশ ও আহত যাত্রীরা আজ জানান, আজ শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তুরাগের কামারপাড়া- আশুলিয়া বেরীবাঁধ সড়কের তালতলা এলাকায় ঢাকা ছেড়ে জামাল পুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া এসকে জননী পরিবহনের ঢাকা মেট্রো-ব-১৪-৩৩৬০ নম্বরের একটি বাস ও সাভার আশুলিয়া থেকে আব্দুল্লাহপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা আশুলিয়া ক্লাসিক ঢাকা মেট্রো-ব-১২-০১১৫ নম্বরের দুটি বাসের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এসময় দুইটি বাসের সামনের অংশ ধূমড়ে মুচড়ে যায়। এতে দুই বাসের চালক,২ মহিলা,শিশু সহ কমপক্ষে ৩০ থেকে ৩৫জন যাত্রী আহত হয়। আহতদের মধ্যে বাসের দুই চালক সহ ৫জনের অবস্থা গুুরুতর বলে জানা গেছে। মর্মান্তরিক সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে তুরাগ থানা পুলিশ,উত্তরা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে ও স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় আহতদেরকে উদ্বার করে হাসপাতালে পাঠায়। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পর এক গাড়ি চালক মারা যায়। তার পরিচয় এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি।

তুরাগ থানার ওসি (অপারেশন) মো: দুলাল হোসেন আজ জানান, মর্মান্তরিক সড়ক দুর্ঘটনায় কমপক্ষে ১৫ থেকে ২০জন যাত্রী আহত হয়েছে। হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মধ্যে গুরুতর আহত এক গাড়ি চালক মারা গেছে। তার নাম এখনও জানা যায়নি। পরবর্তীতে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

উত্তরা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স (দমকল বাহিনীর) সিনিয়র স্টেশন অফিসার (ইনচার্জ) মো: শফিকুল ইসলাম আজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বাসসকে আর ও জানান,চালক সহ কমপক্ষে ১৫জন যাত্রীকে আহত অবস্থায় উদ্বার করে তুরাগের ইস্টওয়েস্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মর্মান্তরিক সড়ক দুর্ঘটনায় আহত যাত্রীরা হলো-মশিউর রহমান (২৭), মো: জয়নাল (২৮), আইয়ুব আলী (৩৫),মুনসুর আলী (৩৬),মামুন মোল্লা(২৩), আব্দুল সাত্তার (৫৫), তুহিন (২৮),আশিকুর রহমান (২২), শহিদুল ইসলাম (৫০),মলয় (২৭),সুলতান মিয়া (৫৬), মো: নূর উল্লাহ (৪২), আলতাফ হোসেন (৫৫),নুরুল ইসলাম নুরু (৫২),মনিরুল (৩২),তুষার (২২),রাফিকুল ইসলাম বাপ্পি (২১),অহিদুল (৩০), সাহেব আলী (৩৪),আব্দুল আউয়াল (২২),রুহুল আমিন(৩১),শহিদ হাসান (২৬),মায়নুর মোল্লা (৩৩), আসমা আক্তার (২১), জান্নাত (২০), হাজী আব্দুল (৬০),সুমন (২৫), মাসুদ আলম (৩৩), মুশফিক (২৮), হাবিব (২৯),মনিরুল,মাসুদ আল,ইমতিয়াজ প্রমুখ। আহতদের মধ্যে তুরাগের ইস্ট ওয়েস্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মোট ৩২জনকে চিকিৎসা করা হয়েছে। তার মধ্যে ১৮জনকে অর্থো পেডিক ওয়ার্ডে,৫জনকে ওটি ওয়ার্ডে,১জনকে সার্জারী ওয়ার্ডে,৪জনকে জরুরী ওয়ার্ডে এবং বাকী ৫জনকে ইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে। আর বাকী আহতদেরকে স্থানীয় ক্লিনিককে চিকিৎসা প্রদান করা হয়। পরে তুরাগ থানা পুলিশ দুর্ঘটনা কবলিত দুটি বাসকে জব্দ করেছে। এঘটনায় তুরাগ থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্ততি চলছে।

Comments

comments