শিক্ষা

হল খুলতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ৫০ কোটি টাকা দিচ্ছে সরকার


মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে প্রায় এক বছর ধরে বন্ধ রয়েছে দেশের সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আবাসিক হল। এরইমধ্যে করোনা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ায় শিক্ষা কার্যক্রম স্বাভাবিক করতে ও হলগুলো খুলে দিতে আন্দোলনে নামে বেশ কয়েকটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এতে সরকার ১৭ মে হল ও ২৪ মে থেকে বিশ্ববিদ্যালয় খুলতে নির্দেশনা জারি করে।

হলগুলো খোলার প্রস্তুতি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) মাধ্যমে বরাদ্দ দেয়া এ অর্থে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করা ও আবাসিক হলে সংস্কার করা করা হবে।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন গণমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানিয়েছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো দীর্ঘদিন বন্ধ রয়েছে। এগুলোর সংস্কার প্রয়োজন। এছাড়া শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করাও জরুরি। এজন্য ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিতে ইউজিসিকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। যেসব বিশ্ববিদ্যালয়ে আবাসিক হল আছে, তারা এ টাকা পাবে।

ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক মুহাম্মদ আলমগীর মনে করছেন, হলগুলো খুলে দেয়ার ক্ষেত্রে এ টাকা যথেষ্ট নয়। তার মতে, হল সংস্কার ও রক্ষণাবেক্ষণের পেছনেই এ অর্থ ব্যয় হয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য অতিরিক্ত বরাদ্দ প্রয়োজন।

জানা গেছে, শিক্ষার্থীর সংখ্যার অনুপাতে হলগুলো এ অর্থ পাবে। অর্থপ্রাপ্তির দুই মাসের মধ্যে সংস্কার কাজ শেষ করতে হবে।


Related Articles