টঙ্গীতে করোনার উপসর্গ নিয়ে দুই শিক্ষকের মৃত্যু- জানাযা ও দাফন সম্পন্ন

0
13

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : রাজধানীর অদূরে গাজীপুরের টঙ্গীতে করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে দুই স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে।

নিহতরা হলেন- টঙ্গী পাইলট স্কুল অ্যান্ড গার্লস কলেজের সহকারী অধ্যাপক এ কে এম ফারুক ও সিরাজ উদ্দিন সরকার বিদ্যা নিকেতন অ্যান্ড কলেজের সিনিয়র শিক্ষক আনিস।শনিবার ও আজ রোববার ভোরে নিজ নিজ বাড়িতে তাদের মৃত্যু হয়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (জিএমপি) টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: আমিনুল ইসলাম আজ রোববার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রর প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি চিকিৎসক নাজিম উদ্দিন আহমেদ আজ গনমাধ্যমকে এ তথ্য স্বীকার করে জানান, শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টায় নিজ বাড়িতে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যান সহকারী অধ্যাপক এ কে এম ফারুক। আজ রোববার সকালে তার নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে জানা যায় তিনি করোনা পজিটিভ ছিলেন।

জিএমপি-টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: এমদাদুল হক আজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শনিবার রাতে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ মো: জাহাঙ্গীর আলমের উপস্থিতিতে হাজী কছিম উদ্দিন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার এম এম হেলাল উদ্দিনের নেতৃত্বে জানাজা শেষে মরকুন সরকারি কবরস্থানে অধ্যাপক এ কে এম ফারুককে দাফন করা হয়েছে।
টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজ জানান, আজ রোববার ভোরে টঙ্গীর সিরাজ উদ্দিন সরকার বিদ্যা নিকেতন অ্যান্ড কলেজের সিনিয়র শিক্ষক আনিস করোনার উপসর্গ নিয়ে নিজ বাসায় মারা যান। তিনি কয়েকদিন যাবত জ্বর-ঠান্ডায় ভুগছিলেন।

ওসি আরও বলেন, রোববার সকালে হাজী কছিম উদ্দিন ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবকরা জানাজা শেষে তার দাফন সম্পন্ন করেন।

এদিকে, টঙ্গীস্থ সিরাজ উদ্দিন সরকার বিদ্যা নিকেতন অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ ওয়াদুদুর রহমান নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে আজ গনমাধ্যমকে জানান, কয়েকদিন যাবত জ্বর ও ঠান্ডায় ভুগছিলেন শিক্ষক আনিস। শনিবার সন্ধ্যায় স্থানীয় ডাক্তারের চেম্বারে গিয়ে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফেরেন তিনি। রাতে অবস্থার অবনতি ঘটলে ভোরে তার মৃত্যু হয়।