রাত ১০:৪৮ রবিবার ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

নিয়োগের দাবিতে আমরণ অনশন কর্মসূচীর ডাক দিলেন শিক্ষক নিবন্ধিত সার্টিফিকেটধারীরা

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : জুন ১৪, ২০১৭ , ২:৩৬ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : শিক্ষা
পোস্টটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধিত নিয়োগবঞ্চিত কেন্দ্রীয় ঐক্য পরিষদ আসছে আগামী ১৫ই জুলাই রোজ শনিবার সকাল ৮টা থেকে সেই ঐতিহাসিক জাতীয় প্রেসক্লাব, ঢাকায় ১-১২তম শিক্ষক নিবন্ধিত সনদধারীদের চাকরির দাবী আদায়ের লক্ষ্যে চলমানভাবে আমরন অনশন কর্মসূচি পালন করতে যাচ্ছে। উক্ত কর্মসূচিতে দল মত নির্বিশেষে সকল সনদধারীদের নিজ অধিকার আদায়ে আসার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। প্রচার সম্পাদক জনাব মিজানুর রহমান সূত্রে এ তথ্য জানা গিয়েছে।

আজ ১৪/০৬/১৭ ইং বুধবার কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে জরুরী সভা ডেকে এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। সভায় কেন্দ্রীয় কমিটির নীতি নির্ধারকগণ উপস্থিত ছিলেন। কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি জনাব জাহাঙ্গীর আলম বলেন, মনে রাখবেন এটি হতে যাচ্ছে নিবন্ধনধারীদের জন্য একটি র্টারনিং পয়েন্ট। কারণ প্রেসক্লাবের সামনে মিডিয়া কর্মীদের অভাব নেই । এর ফলে আমরা সারা বাংলাদেশে এবং সরকারের উচ্চমহলে সহজে দৃষ্টি আর্কষন করতে পারবো। তবে একটা বিষয় মনে রাখতে হবে আমাদের সংখ্যায় অনেক বেশি হতে হবে। সেইজন্য পরিচিত সবাইকে নিয়ে আসুন। নিজ অধিকার আদায় করুন পারিবারের মুখে হাসি ফোটান , বেকারত্ব দূর করুন ।

কমপক্ষে ১০ হাজার নিবন্ধন সনদধারী আসতেই হবে। যশোর জেলার নিবন্ধনধারী সুব্রত বিশ্বাস বলেন, ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে থেকে আপনারা দলে দলে যোগদান করুন। তিনি আরো বলেন, সব কাজকে বিদায় জানিয়ে ১৫ জুলাই আপনার আসল কাজটা করুন। মনে রাখবেন শিশু না কাদলে কিন্তু মাও দুধ দেয় না । সহসভাপতি জনাব কল্লোল বিশ্বাস ছোটন বলেন, নিজেকে আর সমাজের বোঝা করে রাখবেন না। ঢাকার বাইরে থেকে আসতে হয়তো ২০০- ৩০০ টাকা খরচ হবে । কিন্ত এর বিনিময়ে আপনি দশ লাখ টাকার চাকরি পেয়ে যাবেন।

অপর সহ সভাপতি জনাব পরেশ মন্ডল বলেন, আজ পযন্ত বিপ্লব ছাড়া কোনো আন্দোলন সফল হয়নি । তবে আমরা কেন আমাদের যোগ্য দাবী ছেড়ে দিব????? এছাড়া সহ সভাপতি জনাব ওবায়দুল ইসলাম ওবাইদ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ১-১২ তম দের নিয়োগ না দিয়ে NTRCA ১৩ তম সহ ১৪ তম নিবন্ধন পরীক্ষা নিচ্ছে!!!! তাই তাদেরকে ছাড় দেওয়া হবে না।। কেন্দ্রীয় ঐক্য পরিষদের সভাপতি জনাব জাহাঙ্গীর আলম আমরণ অনশন কর্মসূচিকে পুজি করে নিয়োগ পাবার ব্যাপারে ইতিবাচক আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

Comments

comments