দেশজুড়ে

উল্লাপাড়ায় পৌর নির্বাচনে সুবিধাজনক অবস্থানে আওয়ামীলীগ, বেকায়দায় বিএনপি

  • 112
    Shares

রাজু আহমেদ সাহান, উল্লাপাড়া প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে একক প্রার্থী নিয়ে সুবিধা অবস্থানে রয়েছে আওয়ামী লীগ। বিদ্রোহী প্রার্থী নিয়ে বেকায়দায় রয়েছে বিএনপি। আগামী ১৬ জানুয়ারী উল্লাপাড়া পৌরসভার নির্বাচন। নৌকার বিজয় নিশ্চিত করার লক্ষে উপজেলা আওয়ামী লীগরে নেতাকর্মীরা ব্যাপকভাবে প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন । বর্তমান মেয়র এসএম নজরুল ইসলাম নৌকা প্রতীক পাওয়ার পর আঃ লীগের নেতাকর্মীরা দ্বিধাদ্বন্দ্ব ভুলে গিয়ে সবাই একত্রিত হয়ে নৌকার জয়গান করছেন।

তৃণমূল ছাত্র রাজনীতি থেকে উঠে আসা এস এম নজরুল ইসলামের পৌর আঃলীগে তার সাংগঠনিক কাঠামো অনেক শক্তিশালী। ওই শক্তিকে কাজে লাগিয়ে তার বিজয়ে আশাবাদী। উল্লাপাড়া পৌরসভায় বিগত দিনে তার উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে সাহসী ভূমিকা রেখে পৌরসভা পরিচালনা করেছেন। পৌর নির্বাচন কে সামনে রেখে আঃলীগের নেতাকর্মীরা প্রত্যেক ওয়ার্ড, পাড়া-মহল্লায় গিয়ে উঠান বৈঠক ও ব্যাপক গণসংযোগ চালিয়ে সাধারণ ভোটারদের কাছে ভোট চাচ্ছেন।

পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতীককে জয়যুক্ত করার জন্য ইতিমধ্যে কেন্দ্র কমিটি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা আঃলীগের আহ্বায়ক ও পৌর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা। তিনি আরো জানান জননেতা তানভীর ইমাম এমপির দিক নির্দেশনায় আমরা উপজেলা আঃলীগ সবাই এক হয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করছি।

আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী এস.এম নজরুল ইসলাম বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতীক নৌকা। এই নৌকা প্রতীক নিয়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। বর্তমান প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাসী, তাই মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি হিসেবে সবাই নৌকায় ভোট দিবেন বলে তিনি আশাবাদী। এসএম নজরুল ইসলাম আরো জানান আগামী ১৬ জানুয়ারি ভোট বিপ্লবের মাধ্যমে বিজয় ছিনিয়ে আনব ইনশাআল্লাহ ।

অন্যদিকে বিদ্রোহী প্রার্থী নিয়ে বেকায়দায় উল্লাপাড়া পৌরসভা বিএনপির নেতাকর্মীরা। বিএনপি থেকে দলীয় মনোনয়ন পেয়ে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করছেন উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব মোঃ আজাদ হোসেন। সুষ্ঠ নির্বাচন হলে বিপুল ভোটে বিএনপি বিজয় হবেন বলে তিনি আশাবাদি। আজাদ হোসেন উল্লাপাড়া উপজেলা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা আলী হোসেনের বড় ছেলে।

পৌর নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী আজাদ হোসেনের পাশাপাশি বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে মাঠে নেমেছেন পৌর বিএনপির সদস্য ও সাবেক পৌর মেয়র মোঃ বেলাল হোসেন। সবমিলিয়ে বিএনপির নেতাকর্মী ও সামর্থকরা দ্বিধাদ্বন্দ্বের মধ্যে আছেন। বিএনপি সাংগঠনিকভাবে বিদ্রোহী প্রার্থী বেলালকে ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছে বলে দলীয় নেতাকর্মীরা মনে করেন। বিএনপির এই সাংগঠনিক ব্যর্থতা ও দ্বিধাদ্বন্দ্ব সাধারণ ভোটারদের কাছে স্পষ্ট বার্তা দিচ্ছে নির্বাচনে কি হতে যাচ্ছে। তবে বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী ঠেকাতে জেলা বিএনপি থেকে বেলালকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছেন।

বিএনপি প্রার্থী আজাদ হোসেন জানান বিগত দিনে বিভিন্ন দলীয় কর্মকান্ড পরিচালনার জন্য রাজনৈতিক মামলা-হামলার শিকার হয়েছেন। আজাদ হোসেন মনে করেন সুষ্ঠু নির্বাচন হলে বিপুল ভোটে বিএনপি জয়যুক্ত হবেন বলে তিনি আশাবাদী। তিনি আরো জানান বিদ্রোহী প্রার্থী বেলাল দলের সাথে বেইমানি করেছে । দলীয় ভোট তিনি পাবেন না। তিনি আরো জানান প্রচার-প্রচারণার ক্ষেত্রে কোন বাধাবিঘœ পাইনি সুষ্ঠুভাবে নির্বাচনী প্রচার চালাচ্ছি।

বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী বেলাল হোসেন বলেন, বিএনপি প্রার্থী দুর্বল সে হিসেবে দলীয় ভোট গুলো তিনি পাবেন বলে জানিয়েছেন এবং তিনি স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন ফলাফল যাই হোক শেষ পর্যন্ত তিনি নির্বাচনী মাঠে থাকবেন। বেলাল হোসেন অভিযোগ করেন আঃলীগের লোকজন তাকে নির্বাচন প্রচার-প্রচারণায় বাঁধা দিচ্ছে।

উল্লাপাড়া উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুল ওহাব জানান দলীয় প্রতীক ধানের শীষ যাকে দেওয়া হয়েছে, বিএনপি নেতাকর্মীরা তার পক্ষেই কাজ করছে। তবে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে বিএনপির যে প্রার্থী নির্বাচন করছে সে দলীয় ভোটে কোন প্রভাব ফেলতে পারবে না। তিনি আরো জানান দল যাকে মনোনয়ন দিয়েছে সবাই তাকেই ভোট দিবে এবং সুষ্ঠু নির্বাচন হলে বিএনপি বিপুল ভোটে জয়যুক্ত হবেন।


  • 112
    Shares

Related Articles