দেশজুড়ে

বৃদ্ধ মাকে রাস্তায় ফেলে আসার অভিযোগে তিন সন্তান গ্রেপ্তার


ভরণ-পোষণের দায়িত্ব না নিয়ে বৃদ্ধ মাকে রাস্তায় ফেলে আসার অভিযোগে তার তিন ছেলেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঈদের দিন সোমবার রাতে জয়পুরহাট শহরের জানিয়ার বাগান এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। গ্রেপ্তারকৃত ছেলেরা হলো জানিয়ার বাগান মহল্লার আব্দুর রাজ্জাক, মোয়াজ্জেম হোসেন এবং মোজাম্মেল হক। বৃদ্ধ মা সিরাতুন্নেছা জয়পুরহাট পৌরসভার জানিয়ার বাগান মহল্লার মৃত নুর মোহাম্মদ মোল্লার স্ত্রী।

পুলিশ জানায়, ঈদের দিন সোমবার ৮০ বছরের ওই বৃদ্ধকে রাস্তায় আহাজারি করতে দেখে স্থানীয়রা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেয়। পরে পুলিশ এসে অসহায় বৃদ্ধ সিরাতুন্নেছাকে উদ্ধার করে থানায় নেয়। এ সময় মা এর দায়িত্ব না নিয়ে রাস্তায় ফেলে যাওয়ার অমানবিক আচরণ করার অভিযোগে তিন ছেলেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ থানায় নেয়। সেখানেও তারা তিনজনই বৃদ্ধ মা এর দায়িত্ব নিতে অপারগতা প্রকাশ করে। পরে তাদের বিরুদ্ধে বৃদ্ধ সিরাতুন্নেছার পক্ষে নাত-বউ শিল্পী আক্তার বাদী হয়ে মামলা করলে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে। ওই রাতেই পুলিশ বৃদ্ধ সিরাতুন্নেছাকে সাময়িকভাবে জয়পুরহাট কারীগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সেফ হোমে রাখার ব্যবস্থা করে।

স্থানীয় সুত্র জানায়, বৃদ্ধা সিরাতুন্নেছার তিন ছেলে কৌশলে তার নামের সব জমি লিখে নেওয়ার পর থেকে তার ভরন-পোষণে অবহেলা, মানসিক নির্যাতনসহ চরম অমানবিক আচরণ শুরু করে। একপর্যায়ে কোনো ছেলেই তার দায়িত্ব নেবেন না বলে ঈদের দিন সোমবার সকালে শহরের জানিয়ার বাগান এলাকার জয়পুরহাট-আক্কেলপুর সড়কের পাশে ফেলে রেখে যান। রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে।

জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহা. শাহরিয়ার খাঁন বলেন, বৃদ্ধ সিরাতুন্নেছা পৌর এলাকার মূল্যবান জমির মালিক ছিলেন। কৌশলে তাঁর তিন ছেলে সব জমি লিখে নিয়ে মানসিক নির্যাতনসহ তার প্রতি চরম অমানবিক আচরণ করেন। ঈদের দিন সকালে বৃদ্ধ মাকে তাঁর তিন ছেলে রাস্তায় ফেলে আসে। তাঁকে এক গ্লাস পানিও দেওয়া হয়নি। এমন অমানবিক ঘটনায় মামলা নেওয়ার পর তাঁর তিন ছেলেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা দায়িত্ব নিতে অস্বীকার করায় বৃদ্ধ মাকে সাময়িকভাবে জয়পুরহাট কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সেফ হোমে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

আরও পড়ুন
Close
Back to top button