ক্যাম্পাস

যৌন হয়রানি: জগন্নাথের শিক্ষক রাজীব বহিষ্কার

ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মীর মোশারেফ হোসেনকে (রাজীব মীর) স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এর আগে তাকে একাডেমিক ও অন্যান্য কার্যক্রম থেকে তাকে বিরত রাখা হয়েছিল।

রবিবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭৪তম সিন্ডিকেট সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত বছরের ১১ এপ্রিল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মীর মোশারেফ হোসেনের (রাজীব মীর) বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ ওঠে। আর তাকে সহযোগিতা করার অভিযোগ ওঠে একই বিভাগের দুই শিক্ষিকা বর্ণনা ভৌমিক ও প্রিয়াঙ্কা সরকারের বিরুদ্ধে। তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন ওই বিভাগেরই এক ছাত্রী। পরে একই বিভাগের আরও কয়েক ছাত্রী ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির লিখিত অভিযোগ দেন।

ওই অভিযোগের ভিত্তিতে রাজীব মীরকে এমএসএস শ্রেণির একাডেমিক ও অন্যান্য কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার জন্য অফিস আদেশ জারি করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। রাজীব মীরকে সহযোগিতার অভিযোগে দুই শিক্ষিকা বর্ণনা ভৌমিক ও প্রিয়াঙ্কা সরকারকে কারণ দর্শানোর আদেশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এদিকে জবির নাট্যকলা বিভাগের এক ছাত্রী যৌন হয়রানির অভিযোগ তোলার পর একই বিভাগের চেয়ারম্যান আবদুল হালিম প্রামাণিক ওরফে সম্রাটকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এর আগে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছিল।

এদিকে ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে জবির ‘ডি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষক দেওয়ান বদরুল হাসান এবং পদোন্নতি পেতে গবেষণা জালিয়াতির অভিযোগে ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক নাসির উদ্দিন আহমদকেও কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে প্রশাসন।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.