রাজধানী

ঈদের নামাজে করোনামুক্তির প্রার্থনা


করোনা মহামারীর মধ্যে এবার ঈদুল ফিতরের চিরচেনা রূপ বদলে গেছে। সংক্রমণ এড়াতে ঈদগাহের পরিবর্তে বিধিনিষেধ মেনে মসজিদে মসজিদে হচ্ছে ঈদ জামাত।

স্বাস্থ্যবিধি আর সামাজিক দূরত্ব মেনে ঈদের নামাজে অংশ নিয়েছেন হাজারো মুসলিম। সবার মুখে প্রার্থনা- প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস থেকে মুক্তি।

বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে এবারের ঈদের প্রথম জামাত হয় সোমবার সকাল ৭টায়। এরপর সকাল ১০টা ৪৫ মিনিট নাগাদ একে একে পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

রাজধানী ঢাকার বাইরে দেশের সব মসজিদে স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। সংকুলান না হওয়ায় অনেকে মসজিদের প্রাঙ্গণে এবং রাস্তায় খোলা জায়গায় অবস্থান নিয়েও নামাজ আদায় করেন।

ঈদ জামাতে শিশু ও বৃদ্ধদের অংশ না নিতে বলা হলেও দেখা গেছে অনেকে সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে ঈদের নামাজে এসেছেন। প্রবীণদেরও নামাজ পড়তে দেখা গেছে।

নামাজ শেষে মোনাজাতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতদের জন্য দোয়া করা হয়। দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করা হয়। করোনা থেকে সুরক্ষা চাওয়া হয় আল্লাহর কাছে।

এবার মহামারীর মধ্যে এবার ঈদগাহ বা খোলা ময়দানে ঈদের জামাত করার অনুমতি দেওয়া হয়নি। ঈদের নামাজ মসজিদে মসজিদেই হচ্ছে।

নামাজ শেষে কোলাকুলি বা হাত মেলানোতেও এবার নিষেধ ছিল। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মানুষ তা মেনে চললেও দুই-একটি অবশ্য ব্যতিক্রমও দেখা গেছে।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button