দেশজুড়ে

সিরাজদিখানে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় পাঁচজন আহত

  • 63
    Shares

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে পূর্ব শত্রুত্রা ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষ সেলিম গ্রুপের হামলায় লিটন গ্রুপের ১জন গুরুতর আহতসহ ৪ জন আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার ১৬ নভেম্বর সন্ধ্যা অনুমান ৬টার দিকে উপজেলার কাজীশাল গ্রামের আয়নাল হক মেম্বারের বাড়ীর সামনের মুদি দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় চালতিপাড়া গ্রামের মৃত লালচান শেখের ছেলে লিটনকে গুরুতর ও একই গ্রামের মৃত মহসিনের ছেলে সজিব, শেখ তোফায়েলের ছেলে পলাশ, মৃত শেখ রমিজ উদ্দিনের ছেলে মজিবর ও শেখ মজিবরের ছেলে নাহিদ আহত হয়। গুরুতর আহত লিটনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়। বাকীদের উপজেলার বিভিন্ন হাসাপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। খবর পেয়ে সিরাজদিখান থানা পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সেলিম গ্রুপের লোকজনের সাথে লিটন গ্রুপের লোকজনের পূর্ব শত্রুতা চলে আসছিলো। পূর্ব শত্রুতা ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে তাদের উভয় পক্ষের মধ্যে একাধিকবার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে মামলাও রয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার সন্ধ্যা অনুমান ৬টার দিকে কাজীশাল গ্রামের আয়নাল হক মেম্বারের বাড়ীর সামনের মুদি দোকানের সামনে সেলিম গ্রুপের লোকজনকে গালিগালাজ করে লিটনসহ তার গ্রুপের লোকজন। সে সময় সেলিম গ্রুপের লোকজন তাদের লোকজনকে ফোন করে গালাগালির কথা জানায়।

পরে সেলিম গ্রুপের সাইফুল ইসলাম, ইয়ানুছ, মামুন, কালাম, আনিস, রানা, নিঝুম, ছাইদুল, সজিব, সিফাত, রোমান, বিপ্ল হোসেন পিলু, রোবেল সহ আরো বেশ কয়েকজন লিটনসহ তার সাথে থাকা লোকজনের উপর হকি স্টিক ও দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায়। এতে লিটন গুরতর আহতসহ তার সাথে থাকা ৫জন আহত হয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে গুরুতর আহত লিটনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং অন্যদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠায়।

সিরাজদিখান থানা পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) আজহারুল ইসলাম জানান, তাদের দুই গ্রুপের মাঝে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন যাবৎ দ্বন্দ্ব। তারই ধারাবাহিকতায় আজকের এই সংঘর্ষ। খবর পেয়ে থানা পুলিশ সেখানে যায়। এ ঘটনায় কয়েকজন আহত হয়েছে।


  • 63
    Shares

Related Articles