আন্তর্জাতিক

পাকিস্তানে বিমান বিধ্বস্তে নিহত বেড়ে ৯৭

  • 8
    Shares

পাকিস্তানের করাচিতে যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৯৭ জন নিহত হয়েছেন। সিন্ধু প্রদেশের স্বাস্থ্যকর্মকর্তারা এই তথ্য নিশ্চিত করেন। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত বিধ্বস্ত বিমানের ২ জন আরোহীকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে বলে ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এছাড়া হতাহতের মধ্যে ১৯ জনের পরিচয় শনাক্ত করা গেছে। বিমানটিতে ৯১ যাত্রীসহ ৯৯ আরোহী ছিলেন।

দেশটির বিমান কর্তৃপক্ষ জানান, শুক্রবার বিকেলে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশানাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) জেট বিমান এ-৩২০ ৯১ জন যাত্রী এবং ৮ জন বিমান কর্মী নিয়ে লাহোর থেকে করাচির জিন্নাহ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাচ্ছিল।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিমানটি বিধ্বস্তের আগে দুই থেকে তিন বার অবতরণের চেষ্টা করে। কিন্তু শেষমেশ করাচির একটি আবাসিক এলাকায় বিধ্বস্ত হয়ে যায় বিমানটি। শাকিল আহমেদ নামে স্থানীয় একজন বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, বিমানটি প্রথমে একটি মোবাইল টাওয়ারে আঘাত করে। এরপর বাড়ির উপরে বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে। বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, জিন্নাহ বিমানবন্দর থেকে বিমানটি মাত্র প্রায় এক মিনিটের দূরত্বে ছিল।

সিন্ধু প্রদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর গণমাধ্যম সমন্বয়ক মিরান ইউসুফ দুই যাত্রীর বেঁচে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তাদের একজন ব্যাংক অব পাঞ্জাবের প্রেসিডেন্ট জাফর মাসুদ। অন্যজনের নাম জুবায়ের। তাদের অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। মিরান জানান, এখন পর্যন্ত ১৯ জনের লাশ শনাক্ত করা হয়েছে।

দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা আশঙ্কা করছেন, দুর্ঘটনায় আরও অনেকে হতাহত হয়েছে। ওই এলাকার বহু বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। উদ্ধার কাজ অব্যাহত রয়েছে।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী মোহাম্মদ উজায়ের বিবিসিকে জানিয়েছেন, বিকট আওয়াজ শুনে তিনি বাইরে বেরিয়ে আসেন। প্রচুর ধোঁয়া আর আগুন জ্বলছে। প্রায় চারটি বাড়ি পুরো বিধ্বস্ত হয়ে গেছে।

পিআইএ’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এয়ার মার্শাল আরশাদ মালিক জানান, উড়োজাহাজের পাইলট কন্ট্রোল রুমের সঙ্গে যোগাযোগ করে কারিগরি ত্রুটির কথা বলেছিলেন। এজন্য দুটি রানওয়ে প্রস্তুত ছিল উড়োজাহাজটির অবতরণের জন্য।

এদিকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এক টুইট বার্তায় জানান, দুর্ঘটনার খবরে তিনি মর্মাহত এবং দু:খিত। সেইসঙ্গে অবিলম্বে ঘটনার তদন্তের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। বিবিসি, ডন।


  • 8
    Shares

Related Articles