রাত ১০:৪৬ বৃহস্পতিবার ৫ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

বোদায় জমে উঠেছে ঈদ বাজার

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : June 14, 2017 , 7:43 am
ক্যাটাগরি : রংপুর
পোস্টটি শেয়ার করুন

মোঃ মোফাজ্জল হোসেন বিপুলপ্রতিনিধি, বোদা, পঞ্চগড়ঃ আসন্ন ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে সবাই কেনাকাটায়। আর জমে উঠেছে বোদা উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ঈদ বাজার।

এবার ক্রেতাদের একটু আগে থেকেই ঈদের কেনাকাটা করতে দেখা যাচ্ছে। এর কারণ হিসেবে অনেক ক্রেতারা জানায়. ঈদের কেনাকাটা তো কম বেশি করতেই হবে তাই প্রথমেই দেখেশুনে কেনার সময় বেশ ভালো পাওয়া যায়। তাই একটু আগে থেকেই সচেতন ক্রেতারা কেনাকাটা শুরু করেছেন।  বর্তমানে উপজেলার প্রতিটি মার্কেটে ও বিপনী বিতানগুলোতে দেখা গেছে ঈদের আমেজ।

সব দোকানেই ক্রেতার সমাগম লক্ষ্য করা গেছে। পাশাপাশি আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে ব্যস্ত সময় পার করছে দর্জিপাড়ার কারিগররা। অনেকেই আবার ঈদের কেনাকাটায় ভিড় জমার আগেই দর্জির দোকানগুলোতে পছন্দমতো কাপড় কিনে তৈরি করতে দিচ্ছেন বিভিন্ন পোষাক। রাতভর সেলাই মেশিনের শব্দে সমাগম হয়ে থাকছে টেইলার্স পট্টিগুলো। কিছুকিছু টেইলার্সের দোকানে সাইনবোর্ড ঝুলছে ঈদের শেষ আট দিন কোন অর্ডার নেওয়া হবে না।

ছোট থেকে শুরু করে ভিআইপি দোকানের কারিগররা এখন দিনরাত ব্যস্ত। দম ফেলার ফুরসত নেই তাদের। তবে গতবারের চেয়ে এবার প্রতিটি কাপড়ের দোকানগুলোতে দেখা যাচ্ছে ক্রেতাদের উপচেভরা ভিড়। এছাড়া শাড়ির দোকানগুলোতেও রয়েছে সমান ভিড়। শাড়ি ও তার সাথে ম্যাচ করে অন্যান্য জিনিসপত্র কেনার জন্য সবাই এখন ব্যস্ত। এবারের ঈদে বিভিন্ন মেগা সিরিয়ালে নায়িকাদের পরিহিত পোষাকের নামের পোষাকগুলোর চাহিদা তরুণীদের মাঝে।

কেউ কেউ বাহুবলী, ধুম, পাখি জামা কেউ কেউ কিরণমালার জামাসহ অন্য নায়িকাদের পরিহিত জামা বেশি ক্রয় করছে বলে বিভিন্ন দোকান মালিকরা জানান। সবাই এই ঈদে দেশি বিদেশী কাপড় কেনায় ব্যস্ত। এলাকার বিভিন্ন কাপড়ের দোকানে দেখা গেছে, দেশি বিদেশী থ্রি পিস কেনার জন্য মেয়েদের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেলেও বেশি দামের জন্য পছন্দের জিনিস অনেকেই কিনতে পারছে না। উপজেলা পরিষদ মার্কেট, নিউ মার্কেট, সততা মার্কেট, চৌধুরী মার্কেটগুলো ঘুরে দেখা যায় এবারেই বিদেশী কাপড়ে ছয়লাব।

ভারত পাকিস্থান, চীন, জাপান, কোরিয়ান শার্ট প্যান্ট পিছ ও থ্রি পিসে ভরে গেছে বাজার। ভারতীয় বেশির ভাগরই নাম ভারতীয় ছবির নায়ক ও নায়িকাদের নামাণুসারে। উপজেলা কাপড় ব্যবসায়ী লিয়াজ উদ্দীন জানান, এবছর শুরুর দিকে অন্যান্য বছরের তুলনায় ক্রেতাদের ভিড় একটু হলেও লক্ষণীয়। আশা রাখি এবার ঈদের পুরো মৌসুমে ক্রেতাদের ভিড়ে ঈদ বাজারের কেনাকাট অব্যাহত থাকবে। এতে করে ব্যবসায়ীরা অন্য বছরের তুলনায় এবার লাভের মুখ একটু হলেও বেশি দেখবেন বলে আমি আশাবাদী।

উপজেলার সাকোয়া বাজারের কাপড় ব্যবসায়ী এনামুল জানান, এবারে বোরো মৌসুমে ধানের দাম ও অন্যান্য ফসলের দাম তুলনামূলক বেশি হওয়ায় কৃষকের মুখে হাসি। তাই তারা আনন্দের সাথে ঈদের কেনাকাটা করছে।

Comments

comments