দেশজুড়ে

মির্জাগঞ্জের ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আটক, বিয়ের মুচলেকায় মুক্ত।

  • 285
    Shares

মোঃ রনি খান, পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি : মির্জাগঞ্জ উপজেলার মজিদবাড়ীয়া ইউনিয়নের ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মো: সুমন খানকে চলতি বছরে এসএসসি পরীক্ষা দেয়া এক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের দায়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য থানায় জেলহাজতে আনা হয় আটক করেছে মির্জাগঞ্জ থানা পুলিশ।

মেয়ের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে বুধবার(৬মে) সকাল ১১ টায় তাকে আটক করা হয়। অভিযোগে জানায়,তাদের গ্রামের বাড়ী কাকড়াবুনিয়া ইউনিয়নের ভয়াং ৫ নম্বর ওয়ার্ডে।তার বাবা ঢাকায় চাকুরীর সুবাদে সে এ বছরে ঢাকার মধ্যবাড্ডার বকুল নেছা বিএন হাইস্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে।

এসএসসি পরীক্ষার পর বাড়ীতে আসলে করোনা পরিস্থিতীর কারনে ঢাকায় যাওয়া সম্ম্ভব হয়নি। তাদের বাড়ীর পাশ্ববর্তী সুমন খান তাকে দীর্ঘদিন যাবৎ প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল,কিন্তু মেয়ে তাতে সাড়া না দেয়ায় সুমন তাকে বিভিন্ন ভাবে বিরক্ত করার চেষ্টা চালিয়ে আসছিল।গত ১ মে তারিখে দুপূরে বাড়ীতে কেউ না থাকায় সুযোগে সুমন গৃহে প্রবেশ করে তাকে যৌন নিপীড়ন করে তার ডাক চিৎকারে বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসলে সুমন পালিয়ে যায়।পরবর্তীতে বাড়ীর লোকজনের মাধ্যমে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চলরেও কোন সুরাহা না হওয়ায় আজ সকালে মির্জাগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন মেয়ে। পরবর্তীতে পুলিশ সুমনকে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এ বিষয়ে মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শওকত আনোয়ার জানান,. অভিযোগ স্থগিত করে পারিবারিক আপোষ মীমাংসার মাধ্যমে উভয় পক্ষের বিবাহে সম্মতি হওয়ায় তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে এবং মেয়েটিকে বিবাহ করার অঙ্গীকার করেছে।

এবিষয়ে মির্জাগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম জুয়েল সিকদার জানান,
তিনি বিষয়টি ঠিক জানেন না,তবে সুমন মজিদবাড়ীয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক।


  • 285
    Shares

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button