সকাল ১১:০৫ মঙ্গলবার ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং

মেজর জিয়া খালেদাকে ডিভোর্স দিতে চেয়েছিলেন: আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরী

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : জুন ১৩, ২০১৭ , ৪:৩০ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : Uncategorized
পোস্টটি শেয়ার করুন

বিশিষ্ট সাংবাদিক ও লেখক আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরী বলেছেন, প্রয়াত জেনারেল জিয়াউর রহমান স্বাধীনতা যুদ্ধের পর খালেদা জিয়াকে ডিভোর্স দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অনুরোধে তিনি ডিভোর্স দিতে পারেননি।

গত ১২ মে শুক্রবার বিকেলে ইস্ট লন্ডনের মাইক্রো বিজনেন্স সেন্টারে লন্ডনে বাংলাদেশ মিশনের মিনিস্টার প্রেস সাংবাদিক নাদিম কাদিরের লেখা ‘মুক্তিযুদ্ধ অজানা অধ্যায়’ গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরী বলেন, ‘পাকিস্তানি আর্মিদের দখলের সময় বার বার বলা সত্ত্বেও খালেদা জিয়া ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট ছাড়ছিলেন না। তখন মেজর জিয়া আমাকে বলেছিলেন দেশ স্বাধীন হলে তাকে (খালেদা জিয়া) আমি ডিভোর্স দেব।’
তিনি আরো বলেন, ‘আজও আমরা মুক্তিযুদ্ধের একটি পূর্ণাঙ্গ ইতিহাস পাইনি। স্বাধীনতার পর মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিএনপি বিকৃত করেছে। শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান নাদিম কাদির রচিত আমাদের ‘মুক্তিযুদ্ধ অজানা অধ্যায়’ গ্রন্থটি একজন অনুসন্ধানী সাংবাদিকের নিরপেক্ষ দৃষ্টিকোণ থেকে লেখা। আমাদের মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে হলে নাদিম কাদিরের এই গ্রন্থটি গ্রহণযোগ্য।
আব্দুল গাফ্ফার বলেন, একটি অপক্ষপাতমূলক ঘটনার ‘ব্যক্তিগত রাজনৈতিক’ বোঝার জন্য এটি গুরুত্বপূর্ণ। এর একটি ভালো উদাহরণ হিসেবে নাদিম কাদিরের বইটি পড়তে হবে। নাদিম কাদির তার বইয়ে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের প্রতি যে আনুগত্য দেখিয়েছেন তা সত্যিই প্রশংসনীয়।
বৃটেনের প্রাচীনতম বাংলা সাপ্তাহিক জনমত সম্পাদক নবাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাংবাদিক সায়েম চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত প্রকাশনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লন্ডনে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার নাজমুল কাওনাইন, গ্রন্থের উপর আলোচনায় অংশ নেন সাবেক প্রেস মিনিষ্টার সাংবাদিক কলামিষ্ট সৈয়দ বদরুল আহসান, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের প্রেসিডেন্ট সৈয়দ নাহাস পাশা, সাংবাদিক লেখক ইসহাক কাজল।

Comments

comments