দেশজুড়ে

ভোলায় আম্পানের তাণ্ডব, ৩০ যাত্রীসহ ট্রলার ডুবিতে নিহত ১


ভোলায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাত ও প্রভাবে বুধবার ঝড় তাণ্ডবে পড়ে রামদাসপুর চ্যানেল ৩০ যাত্রীসহ একটি ট্রলার ডুবে একজন নিহত হয়েছেন। ট্রলার ডুবিতে নিহত ব্যক্তির নাম রফিকুল ইসলাম। তার বাড়ি ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার মনিরাম এলাকায়।

জানা যায়, ওই ব্যক্তিসহ ৩০ যাত্রী ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে আসেন। এরা লক্ষ্মীপুর জেলার মজুচৌধুরী ঘাট থেকে ট্রলারযোগে ১০ নম্বর মহা বিপদ সংকেত উপেক্ষা করে উত্তাল মেঘনা নদী পাড়ি দিয়ে ভোলায় আসে। ওই ট্রলার রাজাপুর সুলতানীঘাটের কাছে এলে ডুবে যায়। ওই সময় স্রোতের টানে ভেসে যান রফিকুল ইসলাম। পরে তার লাশ উদ্ধার করেন স্থানীয়রা।

ইলিশা ফাঁড়ির ইনচার্জ রতন কুমার শীল জানান, ট্রলার ডুবে যাওয়ার স্পটটি ছিল মেহেন্দীগঞ্জ সীমানায়।

অপরদিকে দুপুরে প্রচণ্ড ঢেউয়ের তোড়ে ইলিশা ফেরিঘাট গ্যাংওয়ে ভেঙে ভেসে যায়। বিধ্বস্ত হয় লঞ্চের পন্টুন। এছাড়া জেলা সদরের শিবপুর কালিকীর্তি এলাকার পুরাতন বেড়ি ধসে যাওয়া বন্ধ করতে স্থানীয় বস্তা ফেলে তা রক্ষা করার চেষ্টা করে। এ ছাড়া ঢালচর, চরপাতলি, কলাতলিসহ ছোটবড় ২০টি চর প্লাবিত হয়েছে। এই সব চরের মানুষদের আগেই সাইক্লোন সেল্টারে নিয়ে আসা হয়।

আম্পানে প্রভাবে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত থাকার পর এক ঘণ্টা কিছুটা বাতাসের গতি কম ছিল। ফের সাড়ে ৬টায় ঝড় ও বৃষ্টি শুরু হয়। জেলায় প্রায় ৪ লাখ মানুষ আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নেয়।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button