হিলিতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ফাঁস দিয়ে নারীর আত্মহত্যা

0
36

দিনাজপুরের হাকিমপুরের হিলিতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সজনী (৪০) নামের এক নারী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।বুধবার সকালে হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হাসপাতালের মহিলা ওয়ার্ডের বাথরুমের জানালার গ্রিলের সঙ্গে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।মৃত নারীর স্বামীর নাম আব্বাস। তার বাড়ি কুষ্টিয়ার মাঝপাড়তে।

হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. তৌহিদ আল হাসান জানান, ওই নারীকে দুদিন আগে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাসপাতালে পাঠিয়েছিলেন। এরপর থেকেই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। অনেকইটাই সুস্থ হয়ে এসেছিলেন তিনি।

ডা. তৌহিদ আল হাসান বলেন, সে (নারী) আমাদের জানিয়েছিল সে হারপিক খেয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেছিল, যার কারণে বমি করছিল। এর মধ্যে আজ সকালে হাসপাতালের বাথরুমের গ্রিলের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে সে আত্মহত্যা করে। পুলিশ তাদের কার্যক্রম সম্পন্ন করে মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে গেছেন।

হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুর রাফিউল আলম জানান, গত সোমবার সকালের দিকে হাকিমপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজের বারান্দায় এক নারী পড়ে আছে ও সে রক্তবমি করছে কিন্তু ভয়ে তার কাছে কেউ যাচ্ছে না স্থানীয়দের কাছে এমন সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছিল।