অপরাধ ও দুর্নীতি

দিনাজপুরে মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে কারাগারে পুলিশের এএসআই

  • 4
    Shares

দিনাজপুর: দিনাজপুরে ফেনসিডিলসহ শামীম আহম্মেদ (৩২) নামে পুলিশের এক সহকারী উপপরিদর্শককে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত আটটার সময় শহরের ইদগাহ আবাসিক এলাকায় আটক করা হয় তাঁকে। মঙ্গলবার রাতেই পুলিশ পরিদর্শক আব্দুস সোবহান বাদী হয়ে মামলা করেছেন। বুধবার সকালে ওই পুলিশ সদস্যকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানা সূত্রে জানা যায়, ওই পুলিশ সদস্য বর্তমানে দিনাজপুর পুলিশ লাইনসে ইন-সার্ভিস ট্রেনিং সেন্টারের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) পদে কর্মরত। বেশ কিছু দিন ধরে তিনি মাদক ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা করে অনৈতিক সুবিধা নিয়ে আসছিলেন। পরে নিজেই মাদক ব্যবসায় যুক্ত হয়ে পড়েন। পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ তাঁকে নজরদারিতে রেখেছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাতে জেলা বিশেষ শাখার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সচীন চাকমা ও সুজন সরকার (সদর সার্কেল) ওই পুলিশ সদস্যকে আটক করেন। এ সময় তার দেহ তল্লাশি করে আট বোতল ফেনসিডিল জব্দ করা হয়।

দিনাজপুর পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, ওই পুলিশ সদস্যের নামে চাঁদাবাজি ও মাদক বেচাকেনার মৌখিক কিছু অভিযোগ ছিল। তারপর থেকেই তাকে বিশেষ নজরদারিতে রাখা হয়েছিল। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে তার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার আরও বলেন, ‘অপরাধীর একমাত্র পরিচয় সে অপরাধী। পুলিশের সদস্য হয়েছে বলে অপরাধ করেও ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকবে এটা কখনোই হবে না। মাদকের বিরুদ্ধে যেখানে আমরা জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছি সেখানে একজন পুলিশ সদস্য মাদক ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা করেছে এটা লজ্জাজনক।


  • 4
    Shares

এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button