ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করলেন গরিবের বন্ধু লিটন মাস্টার

0
3

মোঃ ইব্রাহিম হোসেন, ষ্টাফ রিপোর্টারঃ করোনা ভাইরাসের দুর্যোগ মোকাবেলায় ও আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩১ নং ওয়ার্ডে অসহায়, কর্মহীন ও দরিদ্রদের মাঝে ‘লিটন মাষ্টার টেইলার্স এন্ড্র ফেব্রিক্স’ এর পক্ষ থেকে ‘ঈদ উপহার’ সামগ্রী বিতরণ করেছে, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, সমাজ সেবক ও মোহাম্মদপুর থানার ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য এবং আগামী কাউন্সিলে মোহাম্মদপুর থানার ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদ প্রার্থী মোঃ মোকলেছুর রহমান খান (লিটন মাস্টার)।

আজ ২০ মে ২০২০ রোজ বুধবার সকাল মোহাম্মদপুর টাউন হলে ‘লিটন মাষ্টার টেইলার্স এন্ড্র ফেব্রিক্স’ শোরুমে এ ‘ঈদ উপহার’ সামগ্রী বিতরণ করেন তিনি। উপহার সামগ্রী প্যাকেটে রয়েছে- পোলার চাল, চিনি, সেমাই ২ পদের, তেল ও শিশু খাদ্য গুড়া দুধ এবং মাস্ক।

করোনা ভাইরাসের দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকার ঘোষিত ছুটির মধ্যে কর্মহীন হয়ে বেকায়দায় পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষ। রাজধানীতে ‘দিন এনে দিন খাওয়া’ এসব মানুষের খাবার জুটছে নানাজনের দেয়া ত্রাণে।

এ ‘ঈদ উপহার’ সামগ্রী বিতরণ ব্যাপারে মোঃ মোকলেছুর রহমান খান (লিটন মাস্টার) বলেন, বাংলাদেশে মুসলমানদের সবচাইতে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদ-উল-ফিতর। মোহাম্মদপুর থানার ৩১ নং ওয়ার্ডের কেউ যেন ঈদ-উল-ফিতর দিন অভুক্ত না থাকে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, সফল রাষ্ট্রনায়ক দেশরত্ন শেখ হাসিনা, ঢাকা মহানগর-উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এ মান্নান কচি এবং ঢাকা-১৩ আসনের এমপি আলহাজ্ব সাদেক খান এর নির্দেশে আমার নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে এই অসহায় মানুষদের জন্য ‘ঈদ উপহার’ সামগ্রী প্যাকেটে করেছি। প্যাকেটে রয়েছে- পোলার চাল, চিনি, সেমাই ২ পদের, তেল ও শিশু খাদ্য গুড়া দুধ এবং মাস্ক।সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে এসব ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করছি।

‘ঈদ উপহার’ সামগ্রী বিতরণ বিত্তবানদের উদ্দেশ্যে মোঃ মোকলেছুর রহমান খান (লিটন মাস্টার) বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ও পবিত্র রমজান মাস একই সাথে চলমান থাকায় অসহায় মানুষকে বেশি করে সাহায্য করতে হবে। ভুক্তভোগী মানুষের পাশে দাঁড়ানোর এটাই সুযোগ। সরকারের পাশাপাশি নিজ নিজ ওয়ার্ড ও ইউনিটের গরীব মানুষকে সাধ্যমতো সহায়তা প্রদানের জন্য বিত্তশালীদের প্রতি আহবান জানান তিনি। সবাইকে পবিত্র রমজানের শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় অতি জরুরি প্রয়োজনে বাইরে গেলেও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল করতে হবে। আল্লাহপাক আমাদের এ মহা দুর্যোগ থেকে সবাইকে রক্ষা করুন। আমরা যাতে এ মহামারী থেকে পরিত্রান পেয়ে আগের মতো নিজ নিজ কর্মযজ্ঞে ব্যস্ত থাকতে পারি।