সকাল ১০:৫৮ বুধবার ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

বলিউডের বিতর্কিত যে সিনেমাগুলো মুক্তি পায়নি!

নিউজ ডেস্ক | তরঙ্গ নিউজ .কম
আপডেট : নভেম্বর ২৩, ২০১৭ , ১০:৫৩ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : বিনোদন
পোস্টটি শেয়ার করুন

সঞ্জয় লীলা বনশালীর সিনেমা ‘পদ্মাবতী’ নিয়ে বেশ কিছুদিন হল বিতর্ক চলছে। রানি পদ্মিনীকে এখানে ভুলভাবে দেখানো হয়েছে।

তার মতো ঐতিহাসিক চরিত্রের মানহানি করা হয়েছে। সঙ্গে সম্মানহানি করা হয়েছে রাজপুত সম্প্রদায়েরও। আর এই অভিযোগে কারনি সেনা সিনেমার মুক্তি রদ করার আহ্বান জানিয়ে বিক্ষোভে শামিল হয়েছে।

গুজরাট, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থানসহ একাধিক রাজ্যের সরকার ইতিমধ্যে সেরাজ্যে এই সিনেমা দেখানো নিয়ে আপত্তির কথা জানিয়েছে।

এদিকে, সেন্সর বোর্ডও এখনও ছাড়পত্র দেয়নি। ফলে আগামী ১ ডিসেম্বর মুক্তির কথা থাকলেও তা আটকে গেছে। ভারতে বিতর্কের জন্য মুক্তি পায়নি এমন বহু সিনেমা রয়েছে। তালিকায় কোন কোন সিনেমা রয়েছে তা দেখে নেওয়া যাক।

আনফ্রিডম
২০১৫ সালে এই সিনেমাটি মুক্তি পাওয়ার কথা থাকলেও ‘লেসবিয়ান’ বা সমকামী প্রেমীদের গল্প ও ইসলামি মৌলবাদী সন্ত্রাসবাদ নিয়েও বক্তব্য রাখায় এটিকে আটকে দেওয়া হয়।

এই নিয়ে দু’বছর আগে ব্যাপক শোরগোল হয়েছে।

দ্য পিঙ্ক মিরর
২০০৩ সালে তৈরি এই সিনেমা বিদেশের বহু ফিল্ম ফেস্টিফ্যালে সমাদৃত হয়েছে। সিনেমাটি ট্রান্সজেন্ডার ও সমকামী পুরুষদের গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছিল। তবে ভারতে এই সিনেমা মুক্তি পায়নি।

কামসূত্র
মীরা নায়ারের পরিচালনায় তৈরি ১৯৯৬ সালের এই সিনেমাটির গল্প ষোড়শ শতকের। যৌন দৃশ্যে ভরপুর এই সিনেমা দেশের কোনও হলে মুক্তি পায়নি।

ফায়ার
১৯৯৬ সালের এই সিনেমায় হিন্দু পরিবারে দুই জা’য়ের মধ্যে গড়ে ওঠা সমকামী সম্পর্ক নিয়ে বলার চেষ্টা করেন পরিচালক দীপা মেহতা। তবে তার এই সিনেমা নিয়ে তীব্র বিতর্ক বাঁধায় শিবসেনা। পরে সিনেমাটি ব্যান করে দেওয়া হয়।

ব্যানডিট কুইন
১৯৯৪ সালে তৈরি শেখর কাপুরের এই সিনেমা ডাকাতরানি ফুলনদেবীর জীবনের উপর নির্দেশিত। যৌন দৃশ্য ও অশ্লীল ডায়লগ থাকায় তার মুক্তি আটকে দেয় সেন্সর বোর্ড।

পাঁচ
পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের এই সিনেমা সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পায়নি। যোশী অভয়ঙ্করের ‘সিরিয়াল মার্ডার’-এর ঘটনা নিয়ে ২০০৩ সালে এই ছবিটি বানান অনুরাগ যা দিনের আলো দেখেনি।

ব্ল্যাক ফ্রাইডে
১৯৯৩ মুম্বাই বিস্ফোরণের উপর তৈরি অনুরাগ কাশ্যপের এই সিনেমাটির মুক্তিও আটকে যায় ২০০৩ সালে। এখনও এই নিয়ে মামলা চলায় ছবিটি মুক্তি পায়নি।

সিনস
কেরলের এর যাজক এক নারী প্রেমে পড়েন ও তাদের শারীরিক সম্পর্ক হয়, এই গল্প নিয়ে ২০০৫ সালে তৈরি সিনেমা ‘সিনস’ নিয়ে সারা দেশে ক্যাথলিক সম্প্রদায়ের মানুষ ক্ষোভ দেখান। সিনেমায় যৌন দৃশ্য মাত্রা ছাড়ানোয় এর ছাড়পত্র আটকে দেয় সেন্সর বোর্ডও।

ওয়াটার
২০০৫ সালে তৈরি পরিচালক দীপা মেহতার সিনেমা ‘ওয়াটার’-এর মুক্তি আটকে দেয় সেন্সর বোর্ড। নারী বিদ্বেষ ও সমাজ থেকে গণভোটে বহিঃষ্কার, এই বিতর্কিত বিষয়গুলো নিয়েই তৈরি এই সিনেমায় অভিনয় করেন জন আব্রাহাম ও লিসা রায়।

ফিরাক
জরাত দাঙ্গা নিয়ে ২০০৮ সালে তৈরি এই ছবিটি মুক্তি আটকে দেয় সেন্সর বোর্ড। পরে বহু কাঠখড় পুড়িয়ে মুক্তি পায় ছবিটি। -ওয়ান ইন্ডিয়া।

Comments

comments