দেশজুড়ে

মির্জাগঞ্জে ১৩৮৪৫ জন আশ্রয় নিয়েছে আশ্রয় কেন্দ্রে


মোঃ রনি খান, পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি: ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’ বাংলাদেশের দিকে এগিয়ে আসায় উপকূলীয় এলাকার ঝুঁকিপূর্ণ মানুষকে আশ্রয় কেন্দ্রে নিয়ে আসা হচ্ছে।

বুধবার (২০ মে) সকাল পর্যন্ত ১৩৮৪৫ জন মানুষ আশ্রয় কেন্দ্রে এসেছেন। বিকেল পর্যন্ত মানুষকে আশ্রয় কেন্দ্রে আনা হবে। বুধবার সকালে মির্জাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সারোয়ার হোসেন বলেন,

৫৭ টি আশ্রয় কেন্দ্রে ১৩৮৪৫ জন লোক চলে এসেছে। ঘূর্ণিঝড়টি সন্ধ্যা নাগাদ আমাদের উপকূল অতিক্রম শুরু করতে পারে। এ জন্য সকল স্কুল কলেজসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুালোকেও আশ্রয় কেন্দ্র করা হয়েছে।

তাদেরকে দেওয়া হয়েছে শুকনা চিড়া,গুড় সহ হালকা খাবার। তার পাশাপাশি প্রস্তত আছে ভলান্টিয়ার বাহিনী।

সাগর খুবই বিক্ষুব্ধ রয়েছে। পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত নামিয়ে তার পরিবর্তে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।


এই বিভাগের আরও খবর পড়ুন

Back to top button