সিরাজদিখানে রমরমা ঈদের বাজার, সংবাদ করতে গিয়ে সাংবাদিক লাঞ্ছিত

0
32

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে চলছে রমরমা ঈদের বাজার। করোনার ক্রান্তিলগ্নে যেখানে ঘর থেকে বের হলেই তারা করছে করোনার ভয় কিন্তু সিরাজদিখানবাসী সেই ভয়কে উপেক্ষা করেই করছে ঈদের কেনাকাটা।

উপজেলর সিরাজদিখান বাজারের সমবায় মার্কেট, আ.গনি মার্কেট, হাজী মোস্তফা প্লাজা, ইছাপুরা বাজারে সব গুলো মার্কেট এবং দোকানে দেখা যায় উপচে পরা ভীর। প্রতিটি দোকানেই দেখা যায় বাচ্চা থেকে শুরু করে সকল বয়সে মানুষ। কোন দোকানেই নেই স্প্রে করার সরঞ্জাম বা নিরাপদ দুরত্ব।

একাধিক দোকানে দেখা যায় যে তারা দোকানের শাটার উঠিয়ে ভিতরে একাধিক কাষ্টমার ঢুকিয়ে আবার শাটার নামিয়ে দিচ্ছে।

এব্যাপারে সিরাজদিখান বাজার বনিক সমিতির সাধারন সম্পাদক মো. মোতাহার হোসেন বলেন, দোকানদারেরা আমাদের সাথে চোর পুলিশ খেলতাছে। আমরা তো কিছু করতে পারি না। যা করার প্রশাষণ করবে।

রশুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন চোকদার বলেন, এই বিষয়ে ইউ.এন.ও স্যার কে জানান।
ইছাপুরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন হাওলাদার বলেন, আমি এলাকায় নাই। আমি এসেই ব্যবস্থা নিচ্ছি।
এব্যাপারে সিরাজদিখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, বাজার কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা দোকান বন্ধ রাখবে। এখন দোকান কেন খুলছে তা দেখবে বাজার কমিটির লোকজন। আর আমিও বিষয় টা দেখছি।

দৈনিক খোলা কাগজের সাংবাদিক সংবাদ সংগ্রহের জন্য উপজেলার বাজার এবং দোকান গুলোতে গেলে ইছাপুরা বাজারের স্বদেশ এন্টাপ্রাইজ নামের একটি কাপড়ের দোকানের ভিতরে একাধিক মানুষ দেখে তার ছবি তুললে দোকানের কর্মচারী তাকে মারতে আসে এবং হাতে থাকা ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয় ও ছবি ডিলেট করে দেয়। জানাযায় দোকানটি সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মো. মহসীন রেজার।

এই ঘটনায় দোকান মালিক মহসীন রেজার কাছে একাধিক বার ফোন করা হলে তার মুঠোফোনে পাওয়া যায় নি।